নিজস্ব প্রতিবেদক

  ০৩ অক্টোবর, ২০২২

মহাসপ্তমীতে চক্ষুদান, আজ মহাষ্টমী

শারদোৎসবের প্রথম দিন দুর্গতিনাশিনী দেবীর অধিষ্ঠান, আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে শুরু হয় মূল আনুষ্ঠানিকতা। আর দ্বিতীয় দিন রবিবার (২ অক্টোবর) ছিল মহাসপ্তমী। সকাল ৯টা ৫৭ মিনিটে ত্রিনয়নী দেবী দুর্গার চক্ষুদান, নবপত্রিকা প্রবেশ, স্থাপন, সপ্তমাদি কল্পারম্ভ ও সপ্তমীবিহিত পূজা শুরু হয়। পঞ্জিকা অনুযায়ী, আজ সোমবার মহাষ্টমী, কাল মঙ্গলবার মহানবমী। এভাবে উৎসব চলবে বুধবার বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জন পর্যন্ত।

হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় এ ধর্মীয় উৎসব ঘিরে দেশজুড়ে সৃষ্টি হয়েছে আনন্দ ও উৎসাহ-উদ্দীপনার। ঢাকা মহানগরীর ২৪১টিসহ সারা দেশের ৩২ হাজার ১৬৮টি পূজামণ্ডপে এদিন দুর্গাপূজা শুরু হয়। হিন্দুদের পাশাপাশি অন্য ধর্মের মানুষও যোগ দেওয়ায় উৎসব সার্বজনীন রূপ নিয়েছে। সারা দেশের মণ্ডপে মণ্ডপে ঢাকের বাদ্য, শঙ্খ আর উলুধ্বনির শব্দ দেবী দুর্গার মর্ত্যে আগমনের জানান দিচ্ছে। পূজার মন্ত্র উচ্চারণ, আরতি আর মাইকের আওয়াজে এখন মাতোয়ারা সারা দেশের পূজামণ্ডপগুলো।

পুরাণ অনুযায়ী, এবার দেবী মর্ত্যে এসেছেন গজে চেপে। পুরাণ অনুযায়ী, দুর্গা গজে চড়ে এলে সুখ ও সমৃদ্ধি বয়ে আনেন। আর ৫ অক্টোবর বিজয়া দশমীতে দেবী মর্ত্য ছাড়বেন নৌকায় চড়ে। নৌকায় গমনেও ধরনি হবে শস্যপূর্ণ, তবে থাকবে অতিবৃষ্টি বা বন্যা।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
মহাষ্টমী,মহাসপ্তমী,চক্ষুদান
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close