সংসদ প্রতিবেদক

  ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২

সংসদীয় কমিটিতে ‘দোয়েল’ ল্যাপটপ নিয়ে প্রশ্ন 

ফাইল ছবি

বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থার (টেশিস) তৈরি ‘দোয়েল’ ল্যাপটপ প্রকল্প কেন মুখ থুবড়ে পড়েছিল, তার সঠিক কারণ জানতে প্রশ্ন তোলা হয়েছে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটিতে। ব্যর্থ ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে চিহ্নিত করে শাস্তির আওতায় আনতে সুপারিশ করা হয়েছে। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকের কার্যবিবরণী থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে। রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সংসদীয় কমিটির বৈঠকে ওই কার্যবিবরণী অনুমোদন দেওয়া হয়। কমিটির আগের বৈঠকেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। কমিটির সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিকের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটি সদস্য তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, নুরুল আমিন, মনিরা সুলতানা এবং অপরাজিতা হক বৈঠকে অংশ নেন।

সভার নথির তথ্যমতে, ব্যর্থ হওয়ার কারণ জানতে চান তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। পরে দায়িত্বপ্রাপ্ত ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এ বিষয়ে একমত পোষণ করে সচিবকে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেন। জানা গেছে, প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দোয়েল প্রকল্পটি উদ্বোধন করেন। সেই গর্বের জায়গাটি নষ্ট করা হলো, বিব্রত করা হলো। তিনি বলেন, দোয়েলের প্রথম চালান থেকে শুরু করে প্রকল্পের সব ব্যর্থতার জায়গাগুলো চিহ্নিত করতে হবে। টেশিসকে ডিজিটাল ডিভাইস কারখানা হিসেবে গড়ে তোলার ব্যাপারে একটি সার্ভে পরিচালিত হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটি রক্ষার চেষ্টা চলছে। ২০১১ সালে টেশিস সাশ্রয়ী ব্র্যান্ডের ল্যাপটপ ‘দোয়েল’ তৈরি শুরু করে।

এদিকে, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে উৎপাদিত নকিয়া ব্র্যান্ডের মোবাইল সেট উপহার পেয়েছেন। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের পক্ষ থেকে তাদের ১৪ হাজার টাকার হ্যান্ডসেট ফ্রিতে দেওয়া হয়েছে বলে সংসদীয় কমিটির বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, কমিটির আগের বৈঠকে কমিটির সদস্য নুরুল আমিন বলেন, মন্ত্রণালয়ের আওতায় মোবাইল ও ল্যাপটপ তৈরি করা হয়ে থাকে। কমিটির সদস্যদের মোবাইল সেট দেওয়ার ব্যাপারে আশ্বাসও দেওয়া হয়েছিল। প্রকৃতপক্ষে সেট তৈরি হয় কি না এবং এর গুণগতমান সম্পর্কে তিনি জানতে চান। পরে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, নুরুল আমিন টেশিস-এর উৎপাদিত ল্যাপটপ এবং স্মার্টফোন ন্যায্যমূল্যে কিনতে চেয়েছেন। হাইটেক পার্কে নকিয়া সেট উৎপাদিত হচ্ছে। নকিয়ার উৎপাদিত ১৪ হাজার টাকা মূল্যের সেটটি খুবই ভালো ও সুন্দর।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
দোয়েল ল্যাপটপ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close