reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২১ জুন, ২০২২

গণমাধ্যমে কথা বলতে অনুমতি নিতে হবে এনবিআর কর্মকর্তাদের

ছবি : সংগৃহীত

গণমাধ্যমে বক্তব্য দেওয়ার ক্ষেত্রে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কর্মকর্তাদের প্রতি বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলার ক্ষেত্রে কর্মকর্তা–কর্মচারীদের লাগাম টানলো এনবিআর। নতুন আদেশে পূর্বানুমতি ছাড়া এনবিআর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন না। এ ছাড়া টক-শোতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না। একই সঙ্গে নিবন্ধন ও মতামত লিখতে পারবেন না।

মঙ্গলবার (২১ জুন) এনবিআরের বোর্ড প্রশাসনের দ্বিতীয় সচিব স্নিগ্ধা বিশ্বাসের সই করা এক অফিস আদেশে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে কর্মরত কিছু সংখ্যক কর্মকর্তা/কর্মচারী ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের পূর্বানুমোদন ব্যতিরেকে প্রকৃত দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্র ছাড়া বিভিন্ন বিষয়ে বেতার ও টেলিভিশনের সংবাদ, টকশো, আলোচনা অনুষ্ঠান, পত্র-পত্রিকা,অন-লাইন মাধ্যমে বক্তব্য বা মতামত বা নিবন্ধ বা পত্র প্রকাশ করছেন। সরকারের নীতি-নির্ধারণী অনেক বিষয়েও বক্তব্য বা মতামত দিচ্ছেন, যা সরকারি কর্মচারী (আচরণ) বিধিমালা ১৯৭৯-এর বিধি ২২-এর পরিপন্থি।

এতে আরও বলা হয়, সরকারি কর্মচারী (আচরণ) ১৯৭৯-এর বিধিমালার ২২ মোতাবেক “সরকারি কর্মচারী বিভাগীয় প্রধানের পূর্বানুমোদন ব্যতিরেকে কিংবা প্রকৃত দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্র ব্যতিরেকে বেতার কিংবা টেলিভিশন সম্প্রচারে অংশগ্রহণ করিতে অথবা কোনো সংবাদপত্র বা সাময়িকীতে নিজ নামে অথবা বেনামে অথবা অন্যের নামে কোনো নিবন্ধ বা পত্র লিখতে পারিবেন না।”

আদেশে আরও জানানো হয়, সরকারি কর্মচারী (আচরণ) বিধিমালা ১৯৭৯ সব সরকারি কর্মকর্তা/কর্মচারীর জন্য অবশ্য পালনীয়৷ এমতাবস্থায়, উক্ত বিধিমালার বিধি ২২ সহ সবগুলো বিধান যথাযথভাবে পালনের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে আদেশক্রমে নির্দেশ প্রদান করা হলো।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
গণমাধ্যম,অনুমতি,এনবিআর
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close