reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২২

বরখাস্তের পর ক্ষমা চাইলেন রূপা হক

ছবি : সংগৃহীত

যুক্তরাজ্যের অর্থমন্ত্রী কোয়াসি কোয়ার্টেংকে নিয়ে ‘বর্ণবাদী’ মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি রূপা হক। নিজ দল লেবার পার্টির সংসদীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর ওই মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চান তিনি। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) লিভারপুলে লেবার পার্টির এক অনুষ্ঠানে কোয়াসি কোয়ার্টেংকে ‘লোক দেখানো কৃষ্ণাঙ্গ’ বলে মন্তব্য করেন রূপা হক। এ নিয়ে সমালোচনার মুখে মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) লেবার পার্টির সংসদীয় দল থেকে তাকে বরখাস্তের খবর আসে।

রূপা হককে আপাতত পার্লামেন্টে বসতে হবে স্বতন্ত্র এমপি হিসেবে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখারও ঘোষণা দিয়েছে পার্লামেন্টের বিরোধী দল লেবার পার্টি।

বিবিসি জানিয়েছে, রূপা হক লেবার পার্টির একটি বৈঠকে বলেন, ‘কাওয়াসি কাওয়ারতেংকে দেখে বোঝার উপায় নেই সে একজন কৃষ্ণাঙ্গ। কারণ সে ভালো ও দামি স্কুলে পড়াশোনা করেছে। দেশের সব ভালো স্কুলে পড়েছে। যদি আপনারা আজকের প্রোগ্রামে তার বক্তব্য শোনেন আপনি জানবেন না সে কৃষ্ণাঙ্গ।’

কিংস্টন ইউনিভার্সিটিতে অধ্যাপনা করা রূপা হক একজন ক্যামব্রিজ গ্র্যাজুয়েট। বাংলাদেশ থেকে আসা মোহাম্মদ হক এবং রওশন আরা হক দম্পতির তিন কন্যার মধ্যে তিনি সবার বড়। তার মা-বাবা ১৯৭০ সালে যুক্তরাজ্যে আসেন। বাবার বাড়ি পাবনা শহরের কুঠিপাড়ায়। রূপা হকের ছোট বোন কোনি হক (কনক আশা হক) যুক্তরাজ্যের খ্যাতিমান টেলিভিশন উপস্থাপিকা ও লেখক।

সাধাসিধে চলাফেরা ও বিনয়ী আচরণের জন্য নিজ নির্বাচনী এলাকার ভেতরে ও বাইরে রূপা হক বেশ জনপ্রিয়। জাতীয় ইস্যু ও লেবার পার্টির অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে তাকে বরাবরই সোচ্চার দেখা গেছে। নানা ইস্যুতে পার্লামেন্টে ঝড় তুলে আলোচনার কেন্দ্রে উঠে আসেন তিনি।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
বরখাস্তের পর,ক্ষমা চাইলেন রূপা হক
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close