reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৭ মে, ২০২২

আজাদি মার্চে সহিংসতায় ইমরানের বিরুদ্ধে মামলা

ছবি : সংগৃহীত।

পাকিস্তানে আজাদি মার্চকে কেন্দ্র করে তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) কর্মীদের বিরুদ্ধে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের অভিযোগ তুলে পিটিআই চেয়ারম্যান ও দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এবং তার দলের অন্যান্য নেতাদের নামে মামলা করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) ইসলামাবাদ পুলিশ দুটি পৃথক মামলা করে। খবর দ্য ডন।

মামলায় ইমরানের পাশাপাশি পিটিআই নেতা আসাদ উমর, ইমরান ইসমাইল, রাজা খুররম নওয়াজ, আলি আমিন গন্ডাপুর, আলী নওয়াজ আওয়ানের নাম রয়েছে।

কোহসার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসিফ রাজা প্ররোচনা, মারাত্মক অস্ত্রসহ দাঙ্গা, বেআইনি সমাবেশ, জনসেবাতে বাধা দেওয়া, সরকারি কর্মচারীর উপর হামলা এবং ক্ষয়ক্ষতির উদ্দেশে আগুন বা বিস্ফোরক পদার্থ দিয়ে দুষ্টতার অভিযোগ তুলে একটি মামলা দায়ের করেন।

প্রায় একই ধরনের অভিযোগের ভিত্তিতে এসআই গোলাম সারওয়ার দ্বিতীয় মামলাটি করেন।

জানা যায়, পুলিশ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করলে পিটিআই কর্মীরা পাথর ছুঁড়তে শুরু করে এবং একটি সরকারি বাসও ক্ষতিগ্রস্ত করে। তিনি আরও জানান, পরবর্তীতে ৩৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে এসআই রাজা বলেন, তিনি অন্যান্য পুলিশ কর্মীদের সঙ্গে জিন্নাহ এভিনিউয়ের চায়না চকে ডিউটিতে ছিলেন। বুধবার (২৫ মে) দিনগত রাত ১১টার দিকে পিটিআইয়ের ১০০-১৫০ জন কর্মীরা পতাকাসহ হঠাৎ এক্সপ্রেস চকের দিকে যান। তিনি বলেন, ইসলামাবাদে ১৪৪ ধারা জারির কারণে পুলিশ পিটিআই সমর্থকদের থামানোর চেষ্টা করেছিল কিন্তু তারা শোনেননি এবং পরিবর্তে পুলিশ কর্মকর্তাদের দিকে পাথর ছুঁড়েছে এবং গাছে আগুনও দিয়েছে।

পিটিআই দলের কর্মী-সমর্থকরা বুধবার ডি-চকে পুলিশের তীব্র গোলাগুলির মুখেও উপস্থিত ছিলেন।

ছয়দিনের মধ্যে পার্লামেন্ট ভেঙে দিয়ে নতুন করে নির্বাচনের আয়োজন করতে শাহবাজ় শরিফের সরকারকে সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এই ঘোষণার পরেই সাময়িকভাবে ‘আজ়াদি মার্চ’ শেষ করেন তিনি। এর পরেই ব্যক্তিগত বাসভবন বানি গালার উদ্দেশে রওনা দেন পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)-এর চেয়ারম্যান।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আজাদি মার্চ,সহিংসতা,ইমরান,মামলা
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close