reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৬ জানুয়ারি, ২০২২

আফগানিস্তানে স্কুলে যেতে পারবে মেয়েরা

পশ্চিমা প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে তালেবান পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুত্তাকি (বাঁ থেকে দ্বিতীয়)

আফগানিস্তানের তালেবান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকির নেতৃত্বাধীন একটি রাষ্ট্রীয় প্রতিনিধিদল নরওয়ের রাজধানী অসলোতে পশ্চিমা দেশগুলোর প্রতিনিধিদের সঙ্গে ধারাবাহিক আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) ওই আলোচনার তৃতীয় দিনে আমেরিকার আফগানবিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধি টম ওয়েস্ট এবং নরওয়ের উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী হেনরিক টোন আফগান প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক করেন। খবর পার্সটুডের।

নরওয়ের গণমাধ্যমগুলো জানায়, বৈঠকে হেনরিক টোন তালেবান সরকারের কাছে আন্তর্জাতিক সমাজের উল্লেখযোগ্য দাবিগুলো তুলে ধরেছেন। এ সময় তালেবান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যে, আসন্ন বসন্তে (চলতি বছরের মার্চের শেষভাগে) আফগানিস্তানের হাইস্কুল ও কলেজ পর্যায়ের মেয়েদেরকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়ার সুযোগ করে দেওয়া হবে।

মঙ্গলবারের বৈঠকের পর নরওয়ের অভিবাসন পরিষদের প্রধান ইয়ান ইগল্যান্ড বলেন, তালেবান যদি মেয়েদের স্কুলে যাওয়ার সুযোগ দেওয়ার এই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে, তাহলে তা হবে একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্জন। গত বছরের আগস্টে ক্ষমতায় আসার পর তালেবান আফগানিস্তানের গার্লস স্কুলগুলো বন্ধ করে দিয়ে মেয়েদের স্কুলে যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল।

তবে মেয়েদের স্কুল খুলে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি এর আগেও তালেবান সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতিবিষয়ক উপমন্ত্রী ও মুখপাত্র জবিহউল্লাহ মুজাহিদ দিয়েছিলেন। তবে তিনি তখন কোনো সময়সীমা ঘোষণা করেননি এবং তার প্রতিশ্রুতি এখন পর্যন্ত বাস্তবায়িত হয়নি।

নারীদের শিক্ষা ও চাকরির অধিকারসহ আরও কিছু বিষয়ে আন্তর্জাতিক সমাজের সঙ্গে তালেবান সরকারের মতবিরোধ রয়েছে। বিশ্বের কোনো দেশ এখন পর্যন্ত তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি যদিও এই সরকারের সঙ্গে অনেক দেশই বাণিজ্যিক সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
মেয়ে,স্কুল,আফগানিস্তান,তালেবান
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close