reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ১৪ অক্টোবর, ২০২১

তীর-ধনুক দিয়ে একাই পাঁচজনকে খুন, আতঙ্ক

এ ঘটনার পর পুলিশ সদস্যদেরকে সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র রাখার নির্দেশ দিয়েছে নরওয়ের পুলিশ অধিদপ্তর

নরওয়েতে তীর-ধনুক নিয়ে এক ব্যক্তির হামলায় পাঁচজন নিহত ও দুজন আহত হয়েছেন। বুধবার (১৩ অক্টোবর) দেশটির রাজধানী অসলো থেকে ৬৮ কিলোমিটার দূরে কংসবার্গে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সন্দেহভাজন হিসেবে ডেনমার্কের ৩৭ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে দ্রামেন শহরের একটি থানায় নিয়ে গেছে। হামলায় তীর-ধনুক ছাড়া অন্য কোনো অস্ত্র ব্যবহৃত হয়েছে কিনা, পুলিশ খতিয়ে দেখছে।

স্থানীয় পুলিশ প্রধান ওয়েভিন্দ আস বলেছেন, সন্দেহভাজন হামলাকারীকে ধরা হয়েছে। এখন পর্যন্ত যে তথ্য পাওয়া গেছে, তাতে মনে হচ্ছে—তিনি একাই এসব হামলা চালিয়েছেন। কেন এভাবে তাদের হত্যা করা হলো, তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি। আহতদের মধ্যে একজন পুলিশ কর্মকর্তাও আছেন।

নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী এরনা সোলবার্গ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কংসবার্গ থেকে আজ (বুধবার) রাতে যে খবর এসেছে, তা আতঙ্কজনক। আমি বুঝতে পারছি, অনেকেই ভীতসন্ত্রস্ত, কিন্তু এখন সবকিছু পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আছে।

এ ঘটনার পর পুলিশ সদস্যদেরকে সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র রাখার নির্দেশ দিয়েছে নরওয়ের পুলিশ অধিদপ্তর। দেশটিতে পুলিশ সাধারণত সঙ্গে অস্ত্র রাখে না, তবে প্রয়োজন পড়লে কর্মকর্তারা বন্দুক ও পিস্তল ব্যবহারের অনুমতি পান। খবর বিবিসির

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
নরওয়ে,হামলা,তীর-ধনুক
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close