reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৭ জুলাই, ২০২১

আইএসে যোগ দেয়া নারীকে যা করলো নিউজিল্যান্ড

ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটে (আইএস) যোগ দেয়া সন্দেহভাজন এক নারী ও তার দুই সন্তানকে ফিরিয়ে নিচ্ছে নিউজিল্যান্ড।

সোমবার সুহায়রা আদেন নামে ওই নারীকে ফিরিয়ে আনার ঘোষণা দেয় দেশটির সরকার। 

বিবিসি জানিয়েছে, দুই সন্তানের মা ওই নারী ২০১৪ সালে অস্ট্রেলিয়ার পাসপোর্ট নিয়ে সিরিয়ায় গিয়েছিলেন। এরপর সন্তানদেরকে নিয়ে সিরিয়া থেকে তুরস্কে ঢোকার সময় তিনি ধরা পড়েন।

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড দুই দেশেরই নাগরিকত্ব ছিল সুহায়রার। কিন্তু আইএসের সঙ্গে তার সম্পৃক্ততা জানার পর অস্ট্রেলিয়া সুহায়রার নাগরিকত্ব খারিজ করে দেয়।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন গতবছর এই নারীকে ‘দেশের শত্রু’ আখ্যা দিয়ে তার নাগরিকত্ব বাতিল করেন। এতে চটেছিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আর্ডান।

এ বছরের শুরুর দিকে ফেব্রুয়ারিতে জাসিন্দা বলেন, ওই নারীর অস্ট্রেলিয়ায় ফেরা উচিত, যেখানে সে তার শৈশব থেকে শুরু করে জীবনের বেশিরভাগ সময় কাটিয়েছে।

নিউজিল্যান্ডে জন্ম নেয়া সুহায়রা ছয় বছর বয়সে অস্ট্রেলিয়া যান। তারপর থেকে সেখানেই বসবাস করছিলেন তিনি। ২০১৪ সালে আইএসে যোগ দিতে সিরিয়ায় চলে যান।

আইএসের পরাজয়লগ্নে সিরিয়া থেকে তুরস্ক প্রবেশের সময় ধরা পড়েন তিনি। পরে তুরস্ক সুহায়রাকে ফিরিয়ে নিতে নিউজিল্যান্ডের প্রতি আহ্বান জানায়।

এ প্রসঙ্গে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্দা আরডার্ন বলেন, তাকে এবং তার দুই সন্তানকে ফিরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্তটি খুব হালকাভাবে নেওয়া হয়নি। নিউজিল্যান্ড তার দায়িত্ব গ্রহণ করছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

জাসিন্দা আরও বলেন, আমি এটা নিশ্চিত করতে চাই, ওই নারী ও তার সন্তানদের ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে ভালো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া তারা যাতে নিউজিল্যান্ডের জন্য কোনো ঝুঁকি না হন, সেই বিষয়টিও নিশ্চিত করা হচ্ছে।

পিডিএসও/ইউসুফ

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আইএস নারী,সন্দেহভাজন,দুই সন্তান,নিউজিল্যান্ড,সুহায়রা আদেন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close