মিঠুনের ছেলের বিরুদ্ধে অভিনেত্রী ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর ২০২০, ১৭:৫০

পার্থ মুখোপাধ্যায়, কলকাতা

মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলে মহাক্ষয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এক অভিনেত্রীর। অভিযোগ, প্রায় তিন বছর ধরে ওই অভিনেত্রীকে লাগাতার ধর্ষণ করেছেন মহাক্ষয়। বৃহস্পতিবার মহাক্ষয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ওই অভিনেত্রীকে জোর করে গর্ভপাত করানোরও অভিযোগ রয়েছে। এফআইআরে নাম রয়েছে মিঠুনের স্ত্রী যোগিতা বালিরও।

অভিযোগকারিণী দিল্লিতে গিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। বিয়ের আগেও এই তরুণীর অভিযোগ নিয়ে বিপাকে পড়েছিলেন মিমো। প্রায় ভেস্তেই যেতে বসেছিল তার বিয়ে। সে সময় জানা গিয়েছিল ওই মডেল ভোজপুরী সিনেমার অভিনেত্রী। তার আইনজীবীও সে সময় দাবি করেছিলেন যে, মিমোর সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছিল তার মক্কেলের। মেলানো হয়েছিল কুষ্ঠি। কিন্তু আচমকাই নাকি বেঁকে বসেন মিঠুন-পুত্র। বিয়ে করতে অস্বীকার করেন তিনি। ধর্ষণের পাশাপাশি প্রতারণার মামলাও করা হয় মিমোর বিরুদ্ধে। তার এবং মদালসার বিয়ের দিন বিলাসবহুল উটির হোটেলে পৌঁছে যায় পুলিশ। হোটেল ছেড়ে চলে যায় কন্যাপক্ষ।

পুলিশ সূত্র অনুযায়ী, অভিযোগকারিণী তার বয়ানে জানিয়েছেন, ২০১৫ সালের মে মাসে মহাক্ষয় তাকে নিজের বাড়িতে ডেকেছিলেন। সেখানে ঠান্ডা পানীয়ের সঙ্গে কিছু মিশিয়ে খাইয়েছিলেন। এর পরই মহাক্ষয় তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। এর পর প্রায় তিন বছর ধরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিক বার মহাক্ষয় তাকে ধর্ষণ করেছেন। যদিও মহাক্ষয়ের ২০১৮ সালে অভিনেত্রী মদালসা শর্মার সঙ্গে বিয়ে হয়। এরই সঙ্গে অভিযোগকারিণীর দাবি, মহাক্ষয় জোর করে তাকে গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে চাপ দিয়েছিলেন।

এর পর ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন নিয়ে পরে বিয়ে করেন মিমো ওরফে মহাক্ষয়। অভিযোগকারিণীর দাবি, ওই সময় পুলিশ তার অভিযোগ নিতে চায়নি। এর পর আদালতের দ্বারস্থ হন ওই অভিনেত্রী। তার দাবি, এবার আদালতের নির্দেশেই ওয়াশিওয়াড়া থানায় মিমো এবং তার মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

পিডিএসও/এসএম শামীম