ঢাবি প্রতিনিধি:

  ২৫ মে, ২০২২

ছাত্রলীগ-ছাত্রদল সংঘর্ষে ৪ শতাধিক আসামি করে মামলা

ছবি: প্রতিদিনের সংবাদ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের মধ্যেকার সংঘর্ষের ঘটনাকে কেন্দ্র করে অজ্ঞাত নামে চার শতাধিক আসামি করে মামলা করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বুধবার (২৫ মে) মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী।

গোলাম রব্বানী বলেন, দুটি ছাত্র সংগঠনের সংঘর্ষের ঘটনায় একটি মামলা রজু করা হয়েছে। সম্পদহানী, জাতীয় সম্পদ নষ্ট, পরিকল্পিতভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা নষ্ট, সিনেট শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন বানচালের অপচেষ্টা এবং নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত কর্মীদের ওপর হামলার দায়ে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলার বিষয়ে শাহবাগ থানার ওসি মওদূত হাওলাদার বলেন, গতকাল (২৪ মে) রাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা নষ্ট করা, সরকারি কাজে বাঁধাদান, নিরাপত্তা কর্মীদের মারধর, বাস ভাঙচুর করার অভিযোগে অজ্ঞাতনামায় তিনশ থেকে চারশ জনকে আসামি করে ঢাবি কর্তৃপক্ষ একটি মামলা দায়ের করেছে। এ ঘটনায় ২ জনকে আমরা আটক করে কোর্টে চালান করেছি।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিনেটের ৩৫ জন শিক্ষক প্রতিনিধি নির্বাচন হচ্ছিল। এ সময় একদল দুষ্কৃতকারী লাঠি, রড ও নানা ধরনের দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঢাকা মেডিকেলের বহির্বিভাগের সামনে এক জোট হয়ে নির্বাচন বানচাল ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ বিঘ্নিত করতে অপতৎপরতা শুরু করে। বিষয়টি আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে জানালে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেখান থেকে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

মামলার এজাহারে আরও বলা হয়, গত ২৪ মে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুনরায় শিক্ষা ভবনের সামনের দিক থেকে ৩০০-৪০০ জন দুষ্কৃতকারী কার্জন হলের গেট দিয়ে জোরপূর্বক প্রবেশের চেষ্টা করে। এ সময় গেটের নিরাপত্তা প্রহরী কামাল হোসেন তাদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তার মাথায় লাঠি ও রড দিয়ে আঘাত করতে গেলে তিনি হাত দিয়ে তা ঠেকানোর চেষ্টা করেন। এতে তার হাত জখম হয়। এ ছাড়া শিক্ষার্থীদের আনা-নেওয়ার কাজসহ ও নিয়মিত সেবা প্রদান করা দুটি বিআরটিসি বাস ভাঙচুর করে জাতীয় সম্পদের বিনষ্ট করা হয়।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়,ছাত্রলীগ,ছাত্রদল,প্রশাসন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close