রায়হান তন্ময়, জবি

  ২৪ জানুয়ারি, ২০২১

প্রমোশনের দাবিতে আমরণ অনশনে ৭ কলেজের শিক্ষার্থীরা

প্রমোশনের দাবিতে পুরান ঢাকায় আমরণ অনশনে নেমেছেন সাত কলেজের ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা। আশ্বাস নয় সমাধান চাই, বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের ঠাঁই নাইসহ বিভিন্ন স্লোগান দিয়ে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা।

রোববার পুরান ঢাকার কবি নজরুল সরকারি কলেজের প্রধান ফটকে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন করেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, ২০১৭ সালে রাজধানীর সরকারি সাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে (ঢাকা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ,সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি তিতুমীর কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত করা হয়। বিগত বছরগুলোতে নানান সমস্যার সম্মুখীন হয় সাত কলেজের অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা।

এখন পর্যন্ত সাত কলেজের সমস্যা গুলোর কোনো সুষ্ঠু ব্যবস্থা করা হয় নাই। বিগত কয়েকবার দফায় দফায় আন্দোলন এবং মানববন্ধন করেও কোনো কার্যকরী ফলাফল না পাওয়ায় শিক্ষার্থীরা এবার আমরণ অনশনের সিদ্ধান্ত নেয়। এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপসহ কার্যকর পদক্ষেপ চাইছে সাত কলেজের ভুক্তভোগী সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা অবস্থান কর্মসূচি নিয়ে বলেন, আমরা ৩ বিষয়ে প্রমোশন চাই। সেশনজট এবং অনাকাঙ্ক্ষিত ফলাফল বিপর্যয়ের কারণে অনেক সময় নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিমুখী আচরণ এবং গাফিলতির ফলে হাজারো শিক্ষার্থীর জীবন বিপন্ন হচ্ছে। বারংবার স্বারকলিপি এবং মানববন্ধন করেও আমাদের সমস্যার সমাধান হয়নি।

এজন্য দাবি আদায়ের লক্ষ্য আজ আমার আমরণ কর্মসূচি পালন করছি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নানান অনিয়ম এবং বৈষম্যের বিরুদ্ধেও বক্তব্য দেন তারা। তীব্র সেশনজট নিরসন, অনাকাঙ্ক্ষিত ফলাফল বিপর্যয়, ফলাফল প্রকাশে দীর্ঘসূত্রতা দূরীকরণসহ বিভিন্ন ধরনের সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যেই এই কর্মসূচি পালন করছেন অধিভুক্ত সাত কলেজের ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা।

এ প্রসঙ্গে সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়ক কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খন্দকারকে বারবার ফোন দিলেও তিনি কল রিসিভ করেন নি।

পিডিএসও/এসএম শামীম

প্রমোশনের দাবি,আমরণ অনশন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close