অনলাইন ডেস্ক
  ০৩ ডিসেম্বর, ২০২০

৬৬ বছরে বাংলা একাডেমি

বাংলা একাডেমির ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর)। দেশজ সংস্কৃতি, কৃষ্টি, ইতিহাস, ঐতিহ্য, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, সমকালীন শিল্প ও সাহিত্য সংরক্ষণ এবং গবেষণা ও উন্নয়নের মাধ্যমে জাতির মানসিক বিকাশ ও উৎকর্ষসাধনের লক্ষ্যেই গঠিত হয় বাংলা একাডেমি। 

বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের চর্চা, গবেষণা ও প্রচারের লক্ষ্যে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে (বর্তমান বাংলাদেশে) ১৯৫৫ সালের এই দিনে বাংলা একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেন ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ। রাষ্ট্রভাষা আন্দোলন-পরবর্তী সময়ের প্রেক্ষাপটে বাংলা একাডেমি প্রতিষ্ঠার দাবি ওঠে। তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন বর্ধমান হাউসে এই একাডেমির সদর দফতর স্থাপিত হয়। 

একাডেমির বর্ধমান হাউসে একটি ‘ভাষা আন্দোলন জাদুঘর’ আছে। অমর একুশে গ্রন্থমেলার আয়োজন ছাড়াও গবেষণা, পুস্তক প্রকাশনা, পত্রিকা প্রকাশনা, বিভিন্ন বিশেষ প্রকল্প, মুদ্রণ, সাহিত্য পুরস্কার প্রদান, ফেলোশিপ প্রদানসহ নিয়মিতভাবে নানা কার্যক্রম করে আসছে প্রতিষ্ঠানটি।

দিনব্যাপী নানা আয়োজনে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করবে বাংলা একাডেমি। সকাল সাড়ে ৯টায় একাডেমি প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা ও বাংলা একাডেমির পতাকা উত্তোলন করার মধ্য দিয়ে শুরু হবে এই আয়োজন। এরপর সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহান ভাষা আন্দোলনের অমর শহীদদের স্মৃতির প্রতি ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাড়ে ১০টায় বাংলা একাডেমির স্বপ্নদ্রষ্টা ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। 

শ্রদ্ধা নিবেদনের পর বেলা ১১টায় একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে ‘সবার আগে সংস্কৃতি সবার সঙ্গে সংস্কৃতি’ শীর্ষক প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বক্তৃতা-২০২০। এই বক্তৃতা প্রদান করবেন অধ্যাপক সৈয়দ মোহাম্মদ শাহেদ। এতে স্বাগত ভাষণ প্রদান করবেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী। সভাপতিত্ব করবেন একাডেমির সভাপতি শামসুজ্জামান খান।

পিডিএসও/হেলাল

বাংলা একাডেমি,প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী,বর্ধমান হাউস
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়