হালুয়াঘাটে পাহাড়ি ঢলে বাড়ি-ঘর ও ফসলি জমির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

প্রকাশ : ১২ আগস্ট ২০১৭, ২০:২০

মাজহারুল ইসলাম মিশু, হালুয়াঘাট

ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটের সীামান্তবর্তী ভারতের গাছুয়াপাড়া দিয়ে বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী এলাকা লক্ষিকুড়া, কড়ইতলী ও বিজিবি ক্যাম্প হয়ে প্রবাহিত নদী মেনংচরি। শনিবার ভারী বর্ষনে পাহাড়ী ঢলে মেনংচরি নদী ভাঙনে ভুবনকুড়া ইউনিয়নের দক্ষিন-পূর্ব মহিষলেটি গ্রামের বসত বাড়ি ও ফসলী জমির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্থ আনোয়ার হোসেন জানান, ঠিক যেন রাত দু’টার সময় উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল, নদীর দু’পাশ উপচে পানি প্রবেশ করছে বাড়ি ঘরে। এ সময় এলাকার শত শত নদীর কুলঘেষা মানুষ চিৎকার শুরু করে এবং তাদের মনে এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করে। হঠাৎ করে বিকট শব্দ হলো তার বসত ঘর, দুটি গরু ও প্রায় ৩০ মন ধান পানির স্রোতে ভাসিয়ে নেয়।

এদিকে পলি-বালি দিয়ে প্রায় কয়েক একর জমির ফসল নষ্ট হচ্ছে। তফাজ্জল হোসেন জানান, তারও বসত ঘর সহ প্রায় আড়াই একর জমির ফসল পানির নিচে এবং নদী ভাঙনে পলি বালি মাটি জমিতে প্রবেশ করে নষ্ট করছে এইসব ফসল।

এদিকে পাহাড়ী ঢলে সীমান্তের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ রয়েছে। ভুবনকুড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে মহিষলেটি বাজারের পাকা রাস্তার উপরে ষ্টীলের ব্রিজটিও পানিতে তলিয়ে রয়েছে। ফলে এলাকার বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ দূর্ভোগের মধ্যে রয়েছে। উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, আমি আজকেই ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরির্দশন করেছি, প্রশাসনের পক্ষ থেকে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পিডিএসও/রিহাব