বিজেএমসির কাছে পাবনার পাট ব্যবসায়ীদের পাওনা ২৭৪ কোটি

প্রকাশ : ১৩ জুলাই ২০২০, ১৭:৩৮

পাবনা প্রতিনিধি

পাবনার ক্ষুদ্র পাট ব্যবসায়ীদের বিজেএমসির কাছে বকেয়া পাওনা ২৭৪ কোটি টাকা। পাওনা পরিশোধের জন্য জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেছেন ব্যবসায়ীরা। সোমবার সকালে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) শাহেদ পারভেজের নিকট এ স্মারকলিপি হস্তান্তর করা হয়।

স্মারকলিপি সুত্রে জানা গেছে, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশ পাটকল কর্পোরেশন নিয়ন্ত্রিত ২৫টি জুট মিলস্ সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক বন্ধ ঘোষণা করা হয়। স্বাধীনতার পর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান বিজেএমসির মিলগুলোর চরম সংকটের মাঝেও মিলের উৎপাদন চালিয়ে যাওয়ার স্বার্থে পাবনার প্রায় ৩ হাজার ক্ষুদ্র পাট ব্যবসায়ীরা পাট সরবরাহ করে আসছিল। তারা বিগত ২০১৬ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত বিজেএমসি’র নিকট প্রায় ২৬৪ কোটি টাকা ও বন্ধকৃত আদমজী জুট মিলের ৯.৯৫ কোটি টাকা বকেয়া পাওনা রয়েছে।

এদিকে করোনার কারণে তাদের জমানো টাকা প্রায় নিঃশেষ। এ অবস্থায় অর্থাভাবে তাদের সন্তানদের লেখাপড়া বন্ধের উপক্রম হয়েছে। দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্তদের চিকিৎসাসেবা দিতে পারছেন না। অপরদিকে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়া টাকা সময়মতো পরিশোধ করতে না পারায় মামলা মোকর্দ্দমায় ভূগছেন। পাওনাদারদের চাপে দিশেহারা হয়ে ঘর-বাড়ী ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

এমতাবস্থায় তাদের পাওনা টাকা পেতে সোমবার সকালে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শাহেদ পারভেজ এর  মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ করেন ব্যবসায়ীরা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পাট ব্যবসায়ীদের পক্ষে মো. আব্দুল কুদ্দুস সরকার, শ্রী কার্ত্তিক চন্দ্র সাহা, মো. আব্দুল লতিফসহ অন্যান্য পাট ব্যবসায়ীরা।

পিডিএসও/এসএম শামীম

 

সর্বাধিক পঠিত