মঠবাড়িয়ায় সংস্কার হয়নি আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক

প্রকাশ : ০৩ জুলাই ২০২০, ১৫:৫৮ | আপডেট : ০৩ জুলাই ২০২০, ১৬:৩২

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় টিকিকাটায় আম্পানের জলোচ্ছাসে বিধ্বস্ত সড়ক সংস্কার না করায় জনদূর্ভোগ চরমে। গত এক মাসেরও বেশী সময় অতিবাহিত হলেও ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক সংস্কার না করায় স্থানীয়দের চলাচলে ভোগান্তিসহ লোকালয়ে পানি ডুকে দূর্ভোগ পোহাচ্ছে এলাকাবাসী।

স্থানীয়রা জানান- উপজেলার টিকিকাটা সিনিয়র মাদ্রাসা সংলগ্ন সড়ক ও জনপথের সংযোগ সড়কটি (এলজিইডি) আম্পানের কবলে পড়ে। ওই রাতে ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে ৫/৬ ফুট পানি বৃদ্ধিতে সড়কের ১কিঃমিঃ এলজিইডির কার্পেটিং রাস্তার তিনটি স্থানে ৩শ’ ফুট খাল ও ফসলি জমির সাথে বিলিন হয়ে যায়।

শুক্রবার সরেজমিনে গেলে এলাকাবাসীরা জানান- আম্পান পরবর্তী জোয়ারের প্রভাবে নদী ও খালে স্বাভাবিকের চেয়ে ৩/৪ ফুট পানি বৃদ্ধিতে জোয়ারের সময় প্রায় ২শতাধিক পরিবারের বসতঘর পানিতে ডুবে যায়। এসময় চলাফেরা, রান্না বান্নাসহ গৃহস্থলির কাজে দারুন ভোগান্তি পোহাতে হয়। 

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রিপন এলাকাবাসীর দূর্ভোগের কথা স্বীকার করে বলেন, ঝড় পরবর্তী সময়ে ইউএনও ও উপজেলা প্রকৌশলী ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাটি পরিদর্শন করে দ্রুত মেরামতের আশ্বাস দিলেও সংকারের কোন বরাদ্ধ পাওয়া যায়নি।

উপজেলা প্রকৌশলী মো. জসিম বলেন, ঝড়ে বিধ্বস্ত সড়কটি সরেজমিন পরিদর্শন করে ছবিসহ বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। কিন্তু সংস্কারের কোন অর্থ বরাদ্ধ না পাওয়ায় রাস্তাটি সংস্কার করা যায়নি।

মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঊর্মি ভৌমিক বলেন, জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটি সংস্কারের জন্য তাৎক্ষণিক উপজেলা প্রকৌশলীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

পিডিএসও/এসএম শামীম