কেন্দুয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান কর্তৃক টিসিবির তেল লুট!

প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল ২০২০, ১১:৫৪

কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি

নেত্রকোণা জেলার কেন্দুয়ায় টিসিবির পণ্য তেল লুট নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস টিসিবির ডিলার বলেছেন, তার টিসিবির তেল বা অন্য কোনো পণ্য লুট হয়নি। যারা ফেসবুকে এসব লিখে স্ট্যাটাস দিচ্ছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমার কোনো অভিযোগ নেই।

এদিকে কয়েকজন ফেসবুকে অভিযোগ রেখে লিখেছেন, কেন্দুয়া উপজেলা পরিষদ চত্বর হতে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন ভূঞা এবং তার সহযোগীরা টিসিবির একশ থেকে দেরশ লিটার তেল চুরি করে নিয়ে গেছে।

শনিবার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন ভূঞার সাথে তেল লুটের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি  বলেন, যারা আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলছেন তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। আমার মানসম্মান হেয় করার জন্য কিছু লোক এ কাজ করেছে, আমি তীব্র নিন্দা জানাই। তিনি আরও বলেন,আমি যতদূর জানি আমার গাড়ি চালক উজ্জল মিয়া টিসিবির ৫লিটার তেল, ২কেজি ডাল, ২কেজি চিনি কিনেছেন।


এ বিষয়ের সত্যতা জানতে টিসিবির ডিলার কেন্দুয়া উপজেলার বাচ্চু তালুকদারের সাথে মোবাইল ফোনের কথা হলে তিনি বলেন,আমার সহযোগী নজরুল ইসলামকে আমি প্রতিদিন সকালে টিসিবির পণ্য বুঝিয়ে দেই। সে সারাদিন বিক্রি করে সন্ধ্যায় আমাকে টাকা বুঝিয়ে দেয়। আমার কাছে আমার প্রতিনিধি নজরুল এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ করেনি।

 এ ব্যাপারে আরও সত্যতা জানতে কথা হয় টিসিবির ডিলার এর সহযোগী নজরুল ইসলামের সাথে তিনি বলেন, ইউএনও স্যারের নির্দেশে উপজেলা চত্বরের ভেতরে গাড়ি করে টিসিবির পণ্য বিক্রি করে আসছি গত ১৮ মার্চ থেকে। আমার গাড়ি থেকে কোন তেল চুরি বা লুট হয়নি। 

এ বিষয়ে কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান, সম্ভবত ২এপ্রিল  টিসিবির ডিলারের সহযোগী নজরুল ইসলাম তিনি থানায় হাজির হয়ে বলে তার ১০/১২হাজার টাকার মাল লুটপাট হয়েছে। এসময় নজরুলকে লিখিত অভিযোগ করার কথা বলা হলে সে লিখিত অভিযোগ দিবে বলে আর থানায় আসেনি। নজরুলের কথার ভয়েস রেকর্ড পুলিশের কাছে রয়েছে বলেও তিনি জানান।

এসব বিষয় নিয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম এর সাথে কথা হলে তিনি জানান,আমার জানা মতে এমন কোন ঘটনা পরিষদ চত্বরে ঘটেছে বলে আমার জানা নেই। আর যেহেতু ডিলারের কোন অভিযোগ নেই তার মানে বলা যায় ঘটনাটি মিথ্যা।

পিডিএসও/তাজ