বেড়ায় ২ গোষ্ঠীর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ, নিহত ১

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০২০, ১৭:৫০

বেড়া(পাবনা) প্রতিনিধি

পাবনার বেড়া উপজেলা কৈটলা ইউনিয়নের মাছখালি গ্রামের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে আয়নুল শেখ (৩০) নামের একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের প্রায় ১০ জন আহত হয়েছেন। এছাড়া বাড়িঘর, দোকানপাট ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। বেড়া থানা পুলিশ ৩ জনকে আটক করেছে।

বেড়া মডেল থানা ও এলাকাবাসি সুত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে প্রামানিক গোষ্ঠি (সালা উদ্দিন গ্রুপ) ও শেখ গোষ্ঠীর (আতাই মেম্বর গ্রুপ) মধ্যে এলাকায় প্রভাব বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।

বুধবার সন্ধায় বেড়া উপজেলা কৈটলা ইউনিয়নের মাছখালি গ্রামের হাবিবর প্রামানিকের ছেলে মজিবর প্রামানিক (৩৫) ও একই গ্রামের মিন্টু শেখ ছেলে আব্দুল্লাহ (২৫) মধ্যে মাছধরার ঘটনা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মজিবরের ভাই রওশন এগিয়ে গেলে তাকে মারধর করা হয়।

এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টায় মজিবর প্রামানিক ও গোষ্ঠির (সালাউদ্দিন গ্রুপ) লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে  মিন্টু শেখ ও গোষ্ঠির (আতাই মেম্বর গ্রুপ) লোকজনের বাড়িতে হামলা করে। এ সময় বাধা দিলে উভয় পক্ষ লাঠিসোটা, ইট পাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে বেড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে ছত্রভঙ্গ করে ৩জনকে আটক করে। এ ঘটনায় আহত রওশন প্রামানিক(৩০), আয়নুল হক (৩০), মিন্টু শেখ(৫০), মুবাই শেখ (৩০), ওসমান গনি (৩৪) মোহাম্মদ আলী (৩০) কালু (৩০) রমজান (২৮) কে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়ছে। অবস্থার আবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য আয়নুল শেখকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে দুপুর ১২টার সময় তিনি মারা যান।

আয়নুল শেখের মৃত্যুর খবর পেলে তার স্বজনরা ও শেখ গোষ্ঠির (আতাই মেম্বর গ্রুপ) লোকজন একত্রিত হয়ে প্রামানিক গোষ্ঠির প্রায় ২০টি ঘরবাড়ি, দোকান পাট ভাংচুর, লুটপাটের ঘটনা ঘটায়।

বেড়া মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিদ মাহমুদ খাঁন জানান, মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছে। ৩জনকে আটক করা হয়েছে। মামলার প্রস্ততি চলছে।