করোনা সন্দেহে মাকে জঙ্গলে ফেলে গেলেন সন্তানরা

প্রকাশ : ১৪ এপ্রিল ২০২০, ১৬:১৩

অনলাইন ডেস্ক

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ৫০ বছর বয়সী এক মাকে টাঙ্গাইলের সখীপুরের শাল-গজারির বনে ফেলে গেছেন সন্তানরা। সোমবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলা প্রশাসন গজারিয়া ইউনিয়নের ইছাদিঘী গ্রামের জঙ্গল থেকে তাকে উদ্ধার করে ঢাকায় পাঠায়।

ওই নারীর বাড়ি শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায়। গাজীপুরের সালনায় একটি পোশাক কারখানায় ওই নারীর এক ছেলে, দুই মেয়ে ও জামাতারা চাকরি করেন। সবাই মিলে সালনায় একটি ভাড়া বাসায় থাকেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা মাসুদ রানা বলেন, ওই নারী সবাইকে রান্না করে খাওয়াতেন। কয়েক দিন ধরে ওই নারীর জ্বর, সর্দি, কাশি শুরু হলে আশপাশের বাসার লোকজন তাদের তাড়িয়ে দেন। একটি পিকআপভ্যান ভাড়া করে শেরপুরের নালিতাবাড়ী যাওয়ার পথে সখীপুরের জঙ্গলে সন্তানরা তাকে ফেলে যান।

সখীপুর উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ২ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘গতকাল সোমবার রাত ৮টার দিকে বনের ভেতর থেকে এক নারীর কান্নার শব্দ শুনে স্থানীয়রা আমাকে খবর দেয়। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ এলাকার লোকজন ওই নারীর কাছে যান। ওই নারী তার ছেলেমেয়েরা কীভাবে তাকে জঙ্গলে ফেলে গেছেন, সেই ঘটনা বলেন।

‘পরে রাত ১২টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) খবর দেওয়া হয়। রাত দেড়টার দিকে ওই নারীকে উদ্ধারের পর অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকার কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওই নারীকে ভর্তি না করলে আজ মঙ্গলবার সকাল ৭টায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়।’

সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা শাহীনুর আলম বলেন, ঢাকা মেডিকেলের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে ওই নারীকে। আজ তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে।

advertisement