করাতকলে অচেতন যুবক, উদ্ধার করে হাসপাতালে নিল পুলিশ

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০২০, ১৬:৫১

বেড়া(পাবনা) প্রতিনিধি

পাবনার বেড়া থেকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকা এক যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে পুলিশ।

শনিবার বেড়া সিএন্ডবি করাতকল থেকে বেলা এগারোটার দিকে তাকে উদ্ধার করে বেড়া থানা পুলিশ।

পুলিশ ও চিকিৎসকদের সূত্রে জানা যায়, প্রথমে তার পরিচয় জানা না গেলেও পরে তার নিকটে থাকা জাতীয় পরিচয়পত্র থেকে জানা যায় ওই যুবক উপজেলার হাটুরিয়া-নাকালিয়া ইউনিয়নের মালদহপাড়া গ্রামের হুমায়ুন শেখের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩০)। তিনি ঘুমের ওষুধ খেয়ে থাকতে পারেন বা অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়তে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বেড়া বাসস্ট্যান্ডের পার্শ্ববর্তী একটি করাতকলের কাঠের ওপর অচেতন অবস্থায় এক যুবককে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পরে। ওই যুবক করোনায় আক্রান্ত ভেবে লোকজন তার কাছে যায়নি। পরে বেড়া থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই যুবককে উদ্ধার করে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন। 

এদিকে বিষয়টি মূহুর্তের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে যুবকের পরিবারের লোকজন হাসপাতালে ছুটে আসেন। 

পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সাইফুল ইসলাম তিনি নারায়নগঞ্জে একটি গার্মেন্টসে চাকুরি করেন। গত ২৫ মার্চ তিনি নারায়নগঞ্জ থেকে উপজেলার মালদহপাড়া নিজ গ্রামে আসেন। শুক্রবার বিকালে তিনি তার পরিবারের সাথে রাগারাগি করে বাড়ি থেকে বের হন।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পরিবারের সদস্যরা তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধারের খবর পেয়ে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ছুটে আসেন। 

বেড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিদদ মাহমুদ বলেন, আমরা যুবককে করাতকল থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছি। তিনি অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়ে অচেতন হয়ে থাকতে পারেন।

বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসা কর্মকর্তা (এম.ও) আজফার বিন আনিস বলেন, ওই যুবককে হাসপাতালে ভর্তি করে আমরা প্রয়োজনীয চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছি। তার মধ্যে করোনার কোনো উপসর্গ নেই। তবে তিনি অজ্ঞানপার্টির শিকার হয়ে থাকতে পারেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি।

পিডিএসও/মা