খাগড়াছড়িতে আইসোলেশনে থাকা যুবকের মৃত্যু

প্রকাশ : ২৬ মার্চ ২০২০, ১৭:০৬

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি

খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকা, সাজাই মারমা (৩০) নামে এক মারমা যুবকের মৃত্যু হয়েছে। রোগীর সংস্পর্শে আসায় হাসপাতালের দুইজন চিকিৎসক, দুইজন নার্স ও একজন আয়াকে হাসপাতালের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। 

খাগড়াছড়ির ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা: মিটন চাকমা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বুধবার দুপুরে ওই যুবককে শ্বাসকষ্ট জনিতকারণে, হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে তাকে আইসোলেশনে রাখা হয়। পরে রাত ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ৯ মার্চ থেকে প্রচন্ড জ্বর, মাথাব্যাথা, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন তিনি। তার বাড়ি খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ির নুনছড়ি গ্রামে।

সিভিল সার্জন নুপুর কান্তি দাশ জানান, দীর্ঘদিন ধরেই শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন ওই যুবক। তিনি এর আগেও এ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছিলেন। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সন্দেহ ধরেই তার মরদেহ সৎকারের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

খাগড়াছড়ি আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা: পূর্ণ জীবন চাকমা জানান, বিষয়টি সম্পর্কে বুধবার দুপুরেই আইইডিসিআরে অবহিত করা হয়েছিল। মৃত ব্যক্তির রক্তের নমুনা করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য ঢাকায় আইইডিসিআরকে পাঠানো হবে। এদিকে রোগীর সংস্পর্শে আসায় হাসপাতালের দুইজন চিকিৎসক, দুইজন নার্স ও একজন আয়াকে হাসপাতালের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। মৃত রোগীর নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত তারা কোয়ারেনটিনেই থাকবেন বলেও তিনি জানান। তবে, ঢাকা থেকে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গেলেই এবিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।