নওগাঁ সীমান্তে ২ বাংলাদেশির মরদেহ ফেরত দিলো বিএসএফ

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৫:৩৭ | আপডেট : ২৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৫:৪৮

নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁর পোরশা দুয়ারপাল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে নিহত ২ বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী সনজিত কুমার ও কামাল হোসনের মরদেহ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ। শনিবার রাত সাড়ে ৮টায় দিকে উপজেলার সীমান্ত এলাকা নিলমারী বিল ২৩১(১০) এস পিলার এলাকায় পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বিজিবির কাছে মরদেহ দু’টি হস্তান্তর করা হয়।

ভারতের সীমান্ত রক্ষা বাহিনীর (বিএসএফ) পক্ষে  বিএসএফ-১৫৯ এর কোম্পানি কমান্ডার জসি হর্ষি আনুষ্ঠানিকভাবে মরদেহ হস্তান্তর করেন। বাংলাদেশের পক্ষে মরদেহ গ্রহণ করেন বিজিবি-১৬ ব্যাটলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আরিফুল ইসলাম। 

এ সময় বিজিবি-১৬ নিতপুর ক্যাম্পের কমান্ডার সুবেদার মোহাম্মদ আলী ও হাঁপানিয়া ক্যাম্পের কমান্ডার নায়েক সুবেদার মোকলেসুর রহমান, পোরশা থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিনুর রহমান, তদন্ত কর্মকর্তা নিরেন চন্দ্র উপস্থিত ছিলেন।

বিজিবি-১৬ ব্যাটলিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আরিফুল ইসলাম জানান, মরদেহ দুটি তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। 

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী অবৈধভাবে সীমান্ত পার হয়ে ভারতের অভ্যন্তরে গরু নিতে যান। তারা গরু নিয়ে বাংলাদেশে ফেরার পথে বৃহস্পতিবার ভোরে পোরশা উপজেলার দুয়ারপাল সীমান্ত এলাকার ২৩১/১০(এস) মেইন পিলারের নিলমারী বিল এলাকায় পৌঁছালে বিএসএফ জওয়ানরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এ সময় অন্যরা পালিয়ে যেতে পারলেও গুলিবিদ্ধ হয়ে ভারতের মধ্যে রণজিত কুমার (২৫) ও কামাল হোসেন (৩২) মারা যান।

ফলে তাদের মরদেহ বিএসএফ জোয়ানরা উদ্ধার করে নিয়ে যায়। আর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মফিজুল ইসলাম (৩৮) বাংলাদেশের মধ্যে এসে মারা যান। সংবাদ পেয়ে মফিজুলের মরদেহ উদ্ধার করে তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করেন বিজিবি ও পোরশা থানা পুলিশ।

নিহতরা হলেন, উপজেলার বিষ্ণপুর বিজলীপাড়ার শুকরার ছেলে রণজিত কুমার, বিষ্ণপুর দিঘীপাড়া গ্রামের খোদাবক্সের ছেলে মফিজ উদ্দিন এবং বিষ্ণপুর কাঁটাপুকুরের মৃত জিল্লুর রহমানের ছেলে কামাল হোসেন। 

পিডিএসও/তাজ