মুন্সিগঞ্জে বাস-বরযাত্রীবাহী মাইক্রোর সংঘর্ষে নিহত ১০

প্রকাশ : ২২ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৩৮ | আপডেট : ২২ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৫৪

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলায় বাস ও বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে একই পরিবারের পাঁচজনসহ ১০ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ১১ জন।

শুক্রবার উপজেলার ষোলঘর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরের ক্ষেত্রে সরকারের সঙ্গে ও পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের টানাপোড়েনের মধ্যে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটল।

মুন্সিগঞ্জে নিহতদের মধ্যে বর রুবেলের বাবা আ. রশিদ বেপারী (৭০), বোন লিজা (২৪) ভাগনি তাবাসসুম (৫) ও অপর ভাগনী রেনু (১২) একই পরিবারের সদস্য। অপর সদস্যের নাম জানা যায়নি। নিহতদের মধ্যে অন্যরা হলেন মাইক্রোবাসচালক বিল্লাল (২৮), বরযাত্রী কেরামত বেপারী (৭১), মফিজুল মোল্লা (৬০), তাহসান (৫), অপর অজ্ঞাত দুজন ঢাকায় নেওয়ার পথে অ্যাম্বুল্যান্সে মারা যায়।

নিহতদের মধ্যে একই পরিবারের পাঁচজন ও চালকসহ ১০ জনই মাইক্রোবাসের যাত্রী। হতাহতরা সবাই লৌহজংয়ের কনকসার থেকে কামরাঙ্গীর চরে বিয়ের বরযাত্রী হিসাবে যাচ্ছিলেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে ঢাকাগামী স্বাধীন পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাটের দিকে যাচ্ছিল। একই মহাসড়ক দিয়ে বরযাত্রীবাহী একটি মাইক্রোবাস ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। পথে শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর এলাকায় পৌঁছালে বাস ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

মুন্সিগঞ্জ পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম ১০ জন নিহতের খবর নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ‘দুর্ঘটনায় নিহত ১০ জনের মধ্যে ছয়জন দুর্ঘটনাস্থলে, দুজন ষোলঘর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও দুজন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। গুরুতর আহত আছেন আরো দুজন। এ ছাড়া আরো কয়েকজন আহত আছেন।’ শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, ১০ জন যাত্রী আহত অবস্থায় চিকিৎসা নিয়েছে।

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হেদায়াতুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার পর পুলিশ সেখানে যায়। আহত ব্যক্তিদের শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। লাশ মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আমাদের ঢাকা মেডিকেল প্রতিনিধি জানান, ওই দুর্ঘটনায় আহত দুজনকে বিকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক ৪টা ৫০ মিনিটে আহত একজনকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপরেই অপরজনের মৃত্যু হয়।

পিডিএসও/তাজ