বোনকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদে ভাই ছুরিকাহত, গ্রেফতার ১

প্রকাশ : ৩০ অক্টোবর ২০১৯, ১৭:১১

কক্সবাজার প্রতিনিধি
উত্ত্যক্তকারী মো. ইসমাইল

বোনকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করতে গিয়ে বখাটের ছুরিকাঘাতে কলেজ ছাত্রীর ভাই আহত হয়েছেন। ঘটনার পরপরই রামু থানার ওসি তদন্ত এসএম মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে বখাটেকে গ্রেফতারও করেছে। পুলিশের তড়িৎ পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় জনতা।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে কক্সবাজার রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নে ধোয়াপালং এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে স্থানীয় খুনিয়াপালং ধোয়াপালং এলাকার আহম্মদ কবিরের মেয়ে ও রামু কলেজে ১ম বর্ষের ছাত্রীকে উত্যক্ত করে।

কলেজে আসার জন্য টেকনাফ সড়কের ধোয়াপালং আল ফুয়াদ উচ্চ বিদ্যালয় নামক স্থানে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন ওই ছাত্রী। এসময় খুনিয়াপালং কম্বনিয়া এলাকার আবদুল করিমের বখাটে ছেলে মো. ইসমাইল তাকে উত্ত্যক্ত করে এবং টানা হেঁচড়া করে।

ঘটনাটি ওই ছাত্রীর ভাইকে জানানোর পর ভাই আফজাল কবির রিজভি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং এধরনের ঘটনার প্রতিবাদ করলে উত্ত্যক্তকারী ইসমাইল ও তার সহযোগী তাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। আহত আফজাল কবির রিজভিকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খুনিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মাবুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, কলেজছাত্রী বোনকে উত্ত্যক্ত করার ঘটনায় প্রতিবাদ করায় চুরিকাহতের ঘটনা খুবই দু:খজনক। আমি ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হই এবং পুলিশকে খবর দিই। তিনি অপরাধীর শাস্তির দাবীও করেন।

রামু থানার ওসি (তদন্ত) এসএম মিজানুর রহমান বলেন, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন স্যারের নির্দেশে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে খুনিয়াপালং এলাকায় অভিযান চালিয়ে উত্ত্যক্তকারী ইসমাইলকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

পিডিএসও/রি.মা