বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশ | ০৮ অক্টোবর ২০১৯, ২১:১৭

টুঙ্গিপাড়া (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধি

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেছেন, এখন সারা দেশে শারদীয় দুর্গোৎসব পালন করছেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। সব ধর্মের প্রতি সম্মান প্রদর্শন আমাদের সবার নৈতিক দায়িত্ব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্যই বাংলাদেশ এক সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ হিসেবে পরিণত হয়েছে। তাই সব ধর্মের লোক শান্তিপূর্ণভাবে নিজ ধর্ম পালন করে চলেছে।

গত সোমবার রাতে দুর্গাপূজা উপলক্ষে টুঙ্গিপাড়া উপজেলার পাটগাতী বাজার সার্বজনীন কালীমন্দির পরিদর্শনে এসে তিনি এসব কথা বলেন। 

এ সময় তিনি বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণ করে বলেন, বঙ্গবন্ধুর বিশালতা পাহাড় পর্বতের থেকেও বড়। কারণ তিনি একবার বিদেশে গিয়ে একটি হোটেলে উঠেছিলেন। হোটেলে থাকতে হলে নিজের পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা দেওয়ার নিয়ম ছিল। সেখানে তিনি নিজের পরিচয় উল্লেখ করে জেলার নাম লিখলেন বাংলাদেশ। তখন হোটেলের ম্যানেজার দেখে বললেন, বাংলাদেশ তো দেশের নাম আপনায় জেলার নাম লিখতে হবে না হলে নিয়ম অনুযায়ী আপনি কোনো কক্ষ পাবেন না। তখন শেখ মুজিব বললেন, আমার জেলার নামই বাংলাদেশ। একথা শোনার পর ম্যানেজার হোটেলের মালিকের কাছে গিয়ে বললেন, এ করম এক ব্যক্তি ওনার জেলার নাম লিখছে বাংলাদেশ। তখন মালিক বললেন, তুমি ওনাকে চেননা? ওনার নাম শেখ মুজিব। আর তার মতো ব্যক্তির কোনো জেলা থাকে না পুরো দেশই তার জেলা। 

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় দুর্গোৎসবে শুভেচ্ছা জানিয়ে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, প্রচার সম্পাদক বদরুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান সোলায়মান বিশ্বাস, ইউএনও নাকিব হাসান তরফদার, পৌর মেয়র শেখ আহম্মেদ হোসেন মির্জা, পাটগাতী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবুল শেখ, ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল হক বিশ্বাস, সম্পাদক শেখ বাবুল হোসেন খোকন প্রমুখ।

এর আগে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ উপজেলার বিভিন্ন পূজামন্ডব পরিদর্শন ও সনাতন ধর্মের লোকজনের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

পিডিএসও/তাজ