ভোলায় পুলিশ সুপারের সংবাদ সম্মেলন

মাথা কাটার গুজব ছড়ানো চক্রের সদস্য আটক

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৯, ১৫:১৬ | আপডেট : ১১ জুলাই ২০১৯, ১৫:৪২

ভোলা প্রতিনিধি
গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আটক আবদুল শহিদ হাওলাদার

ভোলার চরফ্যাশন থেকে মাথা কাটার গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আটক করা হয়েছে আবদুল শহিদ হাওলাদার (২৪) নামের এক যুবককে। বুধবার তাকে উপজেলার চরমাদ্রাজ থেকে আটক করা হয়। আটক আবদুল শহিদ হাওলাদার চরফ্যাশন উপজেলার চরমাদ্রাজ ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের বাসিন্দা।

বৃহস্পতির দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার জানান, দীর্ঘদিন ধরে আবদুল শহিদ হাওলাদার বিভিন্ন এলাকার মানুষকে ফোন করে এবং ফেসবুকে পোস্ট ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে শিশুর মাথা কেটে নেওয়া হচ্ছে, ছেলে ধরারা শিশুকে নিয়ে যাচ্ছে—এমন গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করছিলেন।

তিনি আরো বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত স্মার্টফোনসহ তাকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দোষ স্বীকার করেছেন এবং এ কাজে তার সঙ্গে আরো দুজন রয়েছে বলে জানান। আপাতত তাদের নাম প্রকাশে করা যাবে না।

আটক আবদুল শহিদকে গুজব ছড়ানোর জন্য কোনো একটি চক্র উৎসাহিত করেছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তিনি বলেন, কিছু দিন ধরে জেলার বিভিন্ন মানুষকে ফোন করে, ফেসবুকে এবং ম্যাসেঞ্জারের গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাধ্যমে মাথা কাটা ছবি, ভয়ভীতিমূলক লেখা পোস্ট এবং ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হচ্ছিল।

পিডিএসও/হেলাল