বিষক্রিয়ায় মৃত্যু

বাঘায় সাংবাদিক সেলিমের মৃত্যুতে হত্যা মামলা

প্রকাশ : ০৯ জুলাই ২০১৯, ১৮:২৫ | আপডেট : ০৯ জুলাই ২০১৯, ১৯:১৭

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি

রাজশাহীর বাঘায় বিষক্রিয়ায় সেই সাংবাদিকের মৃত্যুতে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার সাংবাদিক সেলিম আহম্মেদ ভান্ডারীর স্ত্রী সোনিয়া আক্তার বাদি হয়ে এ হত্যা মামলা করেন।

জানা যায়, দৈনিক যায়যায় দিন ও স্থানীয় দৈনিক আমাদের রাজশাহী পত্রিকার বাঘা উপজেলা প্রতিনিধি এসএম সেলিম আহম্মেদ ভান্ডারীকে ৩০ জানুয়ারি রাতে মনিগ্রাম বাজারের নিজস্ব নিরাময় হোমিও হলের ডাক্তার মাসিদুল কারিম কৌশলে ডেকে কোমল পানীয় দ্রব্যের সাথে বিষাক্ত অ্যালকাহল জাতীয় দ্রব্য খাওয়ান। সাংবাদিক সেলিম এ দ্রব্য খাওয়ার পর নিজ বাড়িতে চলে যান। তারপর থেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরিবার তাকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩১ জানুয়ারি রাত সাড়ে ১১টার দিকে সেলিমের মৃত্যু হয়।

তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে সন্দেহে সেলিমের লাশ ময়নাতদন্ত করা হয়। সেই ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পুলিশের হাতে এসে পৌঁছে। এ রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, সেই সাংবাদিক  এসএম সেলিম আহম্মেদ ভান্ডারী বিষক্রিয়ায় মারা গেছেন।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আবদুল ওহাব বলেন, বিষক্রিয়ায় সাংবাদিক সেলিম আহম্মেদ ভান্ডারীর মৃত্যু হয়েছে, মর্মে আমাদের কাছে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এসেছে। এ রিপোর্টের প্রেক্ষিতে সাংবাদিকের স্ত্রী সোনিয়া আক্তার বাদি হয়ে হোমিও ডাক্তার মাসিদুল কারিমকে প্রধান আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। আমরা আসামীদের ধরতে অভিযান করেও পাইনি। তবে শীগ্রই আসামীকে গ্রেফতার করে কাঠগড়ায় দাঁড় করাবো।

পিডিএসও/হেলাল