সুনামগঞ্জে জনসভায় স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

হাওরবাসীর হতাশার কোনো কারণ নেই

প্রকাশ | ২০ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:২৬ | আপডেট: ২১ এপ্রিল ২০১৯, ১০:০৪

ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিল একটি সোনার বাংলাদেশ গড়া। কিন্তু নির্মমভাবে তাকে হত্যা করার পর এদেশের মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছিল, পথভ্রষ্ট হয়ে পড়েছিল। দীর্ঘ ২১ বছর এই দেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। সেই সময় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে এসে হাটে গঞ্জে ঘুরে ঘুরে মানুষের সমস্যা চিহ্নিত করেছেন।  বাংলাদেশেেক একটি উন্নত বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়ে তার যাত্রা শুরু করেন এবং এই যাত্রা এখনো অব্যাহত রয়েছে।

শনিবার বেলা ২টার দিকে সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলাধীন মধ্যনগর থানার উবদাখালী ও কায়েতকান্দা সোমেশ্বরী নদীর উপর সেতুর নির্মাণ কাজের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন শেষে মধ্যনগর থানা চত্বরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত  জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের মানুষকে এক সময় ভিক্ষুক ও মিসকিনের জাতি বলা হতো। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ধীরে ধীরে দেশ এগিয়ে যাওয়ায় এখন আর আমাদেরকে ভিক্ষুক ও মিসকিনের জাতি বলতে পারে না। শেখ হাসিনা স্বপ্ন দেখেন এই দেশ সিঙ্গাপুর, হংকং ,সুইজারল্যান্ড ও ইউরোপের মতো উন্নত দেশ হবে। কেউ বলবে না মাগো সারাদিন কিছু খাইনি, আল্লাহর ওয়াস্তে চাইরাটা ভাত দেন। 

মন্ত্রী আরও বলেন, আপনারা হাওরবাসী। আপনাদের বিদ্যুৎ, দারিদ্রতা, ফসল উৎপাদন, আপনাদের যোগাযোগ ব্যবস্থা, আপনাদের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য- সবগুলোর যুগপযোগী পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করা হচ্ছে। তাই হতাশের কোনো কারণ নেই। আপনারা মধ্যনগরকে উপজেলা হিসেবে দেখতে চান। এটি আপনাদের দীর্ঘ বছরের প্রাণের দাবি। তাই মধ্যনগর উপজেলা করার জন্য যা যা করা প্রয়োজন সেই সমস্ত যাবতীয় নিয়মকানুন প্রতিপালন করে আমার দপ্তর থেকে ফাইলটি সুপারিশ করে নিকাহর মিটিংয়ের জন্য প্রেরণ করেছি। আশা করি নিকাহর মিটিংয়ে এটি অনুমোদিত হলে মধ্যনগরকে উপজেলা করার দাবিটি আপনাদের পূরণ হয়ে যাবে। 

স্থানীয় এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতন এই সভায় সভাপতিত্ব করেন। মধ্যনগর থানা যুবলীগের সভাপতি মোস্তাক আহমেদের পরিচালনায় এই সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্রাচার্য, সুনামগঞ্জ ও সিলেট সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি শামীমা শাহরিয়ার, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (গোয়েন্দা) আবদুল বাতেন, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও  জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নূরুল হুদা মুকুট, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন রোকন, মধ্যনগর থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোবারক হোসেন, মধ্যনগর ইউপি চেয়ারম্যান প্রবীর বিজয় তালুকদার প্রমুখ।

এর আগে সকাল সোয়া ১০টার দিকে স্থানীয় এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের বাসভবনে ধর্মপাশা উপজেলার স্থানীয় সরকারের অধীন সংস্থা ও দপ্তর সমূহের কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ।

এর আগে শনিবার সকাল সোয়া ১০টায় উপজেলার পাইকুরাটি ইউনিয়নে স্থানীয় এমপির বাসভবনে ধর্মপাশা উপজেলায় স্থানীয় সরকারের অধীনে সংস্থা ও দপ্তরসমূহের কর্মকর্তাদের সাথে মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম মতবিনিময় সভা করেন। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ। 

পিডিএসও/রি.মা