যশোরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

অচিরেই দেশকে হংকং-সিঙ্গাপুরের আদলে সাজানো হবে

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:৩৭

যশোর প্রতিনিধি

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ছিলো বাংলাদেশকে হংকং, সিঙ্গাপুর ও সুইজারল্যান্ডের মতো উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করার। স্বপ্নপূরণের আগেই ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা বিরোধীরা বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারকে হত্যা করে। যাতে বাংলাদেশ বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে। কিন্তু কুচক্রি মহলের আশা পূরণ হয়নি। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। অচিরেই এদেশকে হংকং-সিঙ্গাপুরের আদলে সাজানো হবে। 

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে দেশের ২৬ হাজার প্রাথমিক শিক্ষক ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা বেতন গ্রহণ করছেন। যারা এক সময় মাত্র ৫শ’ টাকার ভাতা পেতেন। যা শেখ হাসিনার সরকার তাদেরকে জাতীয়করণের মাধ্যমে শিক্ষক হিসেবে মর্যাদা দিয়েছেন। পুলিশ সদস্যরা এক সময় ১৫শ’ টাকার বেতনে চাকরি করতেন, বর্তমানে ২০ হাজার টাকা বেতন গ্রহণ করে থাকেন। বর্তমান সরকারের লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য এ দেশের কোনও সাধারণ নাগরিকও অভাব অনুভব করবে না। 

শুক্রবার দুপুরে যশোরের মণিরামপুরে উপজেলা পরিষদের সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান উল্লাহ শরীফির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র কাজী মাহমুদুল হাসান।

মণিরামপুর পৌরসভাকে ‘খ’ শ্রেণি থেকে ‘ক’ শ্রেণিতে উন্নতি করার ঘোষণা দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এমপি আরও বলেন, মণিরামপুরবাসীর দাবি-দাওয়া জানানো লাগবে না। মণিরামপুর-লাকসাম একইভাবে উন্নয়নের মডেলে মোড়ানো হবে। 

তিনি বলেন, এক সময় বিএনপি সরকার এদেশে কানসাটের জন্ম দিয়েছে। সারের জন্য দাবি নিয়ে রাস্তায় নামাতে ১৭জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। সাবেক অর্থমন্ত্রী এসএম কিবরিয়া, আইভি রহমানসহ অসংখ্য জাতীয় নেতা-কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। খাদ্যের জন্য হাহাকার করেছে জনগণ। বর্তমান মানুষের খাদ্যের অভাব নেই। 

বিএনপি সরকারের অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সাইফুর রহমান জনগণের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন- দেশে অভাব না থাকলে বৈদেশিক সাহায্য মিলবে না। তার মানে তারা দেশে অভাব রাখতে চায়। কিন্তু ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর ক্ষুধা দারিদ্র বিমোচনের জন্য সরকার আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে। যা বর্তমান সরকার সে লক্ষে পৌঁছে গেছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন এ দেশকে সোনার বাংলা তৈরি করা। আজ তারই যোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সে স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

পিডিএসও/রি.মা