পাবনায় প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

প্রকাশ : ১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:২৭

পাবনা প্রতিনিধি
ama ami

অর্থ আত্মসাত ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের অভিযোগে পাবনা সরকারি সাঁথিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিজয় দেবনাথের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। 

সোমবার বেলা ১১টায় শিক্ষার্থীরা বিদ্যালয় প্রাঙ্গন থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে হাজির হয়। এ সময় ব্যানার, প্লেকার্ড নিয়ে প্রধান শিক্ষকের অপসারণের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করে এবং শিক্ষামন্ত্রী বরাবর দেয়া স্মারকলিপি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট প্রদান করে শিক্ষার্থীরা।
 
সূত্র জানায়, সাঁথিয়া সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিজয় কুমার দেবনাথকে সাময়িকভাবে গত ১৫/১১/১৮ তারিখে বরখাস্ত করে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি। বরখাস্তের কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, পরপর দুটি অর্থ ও নিরীক্ষা কমিটির যাচাই-বাছাই এ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পাওয়া গেছে। প্রধান শিক্ষক বিনা রশিদে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বেতন, পরীক্ষার ফি সহ অন্যান্য খাতে যে অর্থ আদায় করেন তা ব্যাংকে জমা দেননা। দৈনন্দিন আয়-ব্যয়ের রেজিস্ট্রার ও মাদার ক্যাশ বই দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন। 

নানাবিধ খরচের বিল ভাউচারে রয়েছে ব্যাপক গরমিল। গত এক বছরে শিক্ষকদের বেতনভাতা ও ঈদ বোনাস দেননি। তার বিরুদ্ধে কমপক্ষে ৬ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগের প্রমাণ পাওয়া গেছে। এ ছাড়া  তিনি অভিভাবক, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে অশালীন আচরণ করে থাকেন। 

গত ০৮-০৯-২০১৫ তারিখে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদানের পর থেকে তার প্রশাসনিক দুর্বলতা, নানা অনিয়ম, অদক্ষতা ও শিক্ষকদের সঙ্গে সমন্বয়য়ের অভাবে বিদ্যালয়ের শিক্ষার মানের ক্রম অবনতি হয়েছে। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি কর্তৃক ১৫/১১/১৮ তারিখে প্রধান শিক্ষককে বরখাস্ত করে এবং ১৭/১১/১৮ইং তারিখের মধ্যে সহকারী প্রধান শিক্ষকের কাছে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে বলা হলেও অদ্যাবধি প্রধান শিক্ষক ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে চলেছেন।

সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলমের নির্দেশে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান অভিযোগের বিয়ষটি তদন্ত করেন। প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আনিত অর্থ আত্মসাত ও অন্যন্য অভিযোগের সত্যতা প্রমানিত হওয়ায় সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পাবনা জেলা শিক্ষা অফিসারকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইননানুগ ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশও করেন। 

এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক বিজয় দেবনাথের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘ইউএনও সাহেব যা করেছেন ভালই করেছেন তবে আমি শেষ পর্যন্ত মোকাবেলা করে যাবো।’

পিডিএসও/অপূর্ব