স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালকের হাসপাতাল পরিদর্শন

প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:১৮

উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

হোপ ফাউন্ডেশন ফর উইমেন এন্ড চিলড্রেন অব বাংলাদেশ কর্তৃক পরিচালিত উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের মধূরছড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নির্মিত ‘হোপ ফিল্ড হসপিটাল ফর উইমেন’ পরিদর্শন করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) প্রফেসর ড. নাসিমা সুলতানা। 

তার এই সফরের সময় উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলার সিভিল সার্জন ডা. এম এ মতিন, ইউএনএফপিএ’র বিশেষ স্বাস্থ্য উপদেষ্টা ডা. সৈয়দ আবু জাফর মুহাম্মদ মুসা, ইউএনএফপিএ’র প্রজেক্ট টেকনিক্যাল অফিসার শামসুজ্জামান, ইউএনএফপিএ’র কোয়ালিটি অফিসার ডা. এ.এ সাফায়েতউল্লাহ, ইউএনএফপিএ’র ফিল্ড অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলম ভুঁইয়াসহ প্রমুখ।

হোপ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ’র কান্ট্রি ডাইরেক্টর কে এম জাহিদুজ্জামান, হসপিটাল ডাইরেক্টর ডা. রোলান্ড ভেলা, সিনিয়র ম্যানেজার শওকত আলী এবং অন্যান্য সিনিয়র কর্মকর্তারা তাদেরকে অভ্যর্থনা জানান।

পরে অতিথিবৃন্দ হোপ ফিল্ড হসপিটালের নতুন অপারেশন থিয়েটার, ম্যাটার্নিটি কর্নার, লেবার রুম, ফার্মেসিসহ বিভিন্ন বিভাগ ঘুরে দেখেন এবং তারা হোপ ফিল্ড হসপিটাল ফর উইমেন এর কার্যক্রমের প্রশংসা করেন। 

উল্লেখ্য, রোহিঙ্গা আশ্রয়গ্রহণকারী অনুপ্রবেশের সাথে সাথেই হোপ ফাউন্ডেশন বিগত ২৫ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখে মধুছড়ায় (ক্যাম্প-০৪) ৪০ শয্যা বিশিষ্ট একটি হসপিটাল স্থাপন করে এবং হসপিটালটিতে ২৩ জুন ২০১৮ থেকে ২৪/৭ ম্যাটার্নিটি ও বহিঃবিভাগ চালু করার মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করে যাচ্ছে। খুব শীঘ্রই হসপিটালটি ইনডোর বিভাগ চালু করতে যাচ্ছে, যার মাধ্যমে ২৪/৭ সিজারিয়ান অপারেশন করা সম্ভব হবে।

কক্সবাজারের সন্তান আমেরিকা প্রবাসী ডা. ইফতিখার মাহমুদ ১৯৯৯ সালে কক্সবাজারে হোপ ফাউন্ডেশন ফর উইমেন এন্ড চিলড্রেন অব বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠা করেন। কক্সবাজার জেলার মাতৃমৃত্যু ও শিশু মৃত্যুর হার কমানো এবং ফিস্টুলা মুক্ত করার জন্যই মুলত এই প্রতিষ্ঠানটি কাজ করে যাচ্ছে। 

পিডিএসও/অপূর্ব