পুলিশ সুপারের স্ত্রীকে নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে হৈ চৈ

প্রকাশ : ০৮ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:০৫

আকরামুল ইসলাম, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

সংরক্ষিত মহিলা আসন সাতক্ষীরা (৩১২) থেকে সংসদ সদস্যের মনোনয়নের জন্য নিজের প্রার্থীতা ঘোষণা করেছেন চৌধুরী নুরজাহার মঞ্জুর। তিনি সাতক্ষীরার সাবেক পুলিশ সুপার চৌধুরী মঞ্জুরুল কবিরের স্ত্রী। বর্তমানে চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্বরত রয়েছেন।

এদিকে, সাতক্ষীরার সাবেক এই পুলিশ সুপার পত্নির প্রার্থীতা ঘোষণার পর থেকে সর্বত্র চলছে আলোচনা। শহর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের চায়ের দোকানসহ রাজনৈতিক মহলে হৈ চৈ পড়ে গেছে। তবে সাধারণ মানুষরা চৌধুরী নুরজাহান মঞ্জুরকেই সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে পেতে চায়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরার তালা সদরের মাঝিয়াড়া বাজারে চায়ের দোকানে ভিড়। আলোচনা চলছে মহিলা আসনের এই প্রার্থীকে নিয়ে। এরই মধ্যে জাহিরুল ইসলাম নামের একজন বলেন, ২০১৩ সালে যখন তীব্র আন্দোলনে মানুষ বাড়ি থেকে বের হতে ভয় পেতো তখন এই পুলিশ সুপারের কারণেই মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পেরেছে। তার স্ত্রীও বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষদের সঙ্গে মিশে সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহন করেছেন। তিনি সাতক্ষীরার সংরক্ষিত মহিলা আসনে সংসদ সদস্য হলে সাধারণ মানুষ উপকৃত হবে। এমন আলোচনা শুধু একস্থানে নয় জেলাজুড়ে সর্বত্র।

নিজের অবস্থান তুলে ধরে সাতক্ষীরার সাবেক পুলিশ সুপার পত্নি চৌধুরী নুরজাহান মঞ্জুর জানান, সংরক্ষিত আসনে আমাকে মনোনয়ন দিলে সাতক্ষীরার মানুষের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন, সাংস্কৃতিক উন্নয়ন ও জীবনমান উন্নয়নে কাজ করবো। রাজনৈতিক ও সাধারণ মানুষদের সঙ্গে নিয়ে মহিলাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা নিশ্চিত করবো।

তিনি আরও জানান, স্বামীর ১৮ বছরের পুলিশের চাকরি জীবনে সব সময় বিভিন্নস্থানে থাকতে হয়েছে। আমার ভোটার আইডি সাতক্ষীরার। দুটি বাচ্চার প্রথম স্কুল জীবনও সাতক্ষীরাতেই। সাতক্ষীরার মানুষের অকৃত্রিম ভালোবাসা পেয়েছি সেজন্য সাতক্ষীরার মানুষদের সঙ্গেই বাকি জীবনটা কাটাতে চাই।

নিজের স্ত্রীর বিষয়ে সাতক্ষীরার সাবেক পুলিশ সুপার ও বর্তমান র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির বলেন, সাতক্ষীরা ছেড়ে আসার পর সাতক্ষীরার মানুষ বিভিন্ন সময় তাদের জন্য কাজ করার অনুরোধ করেছেন। একটা প্লাটফর্ম না হলে কাজ করার সুযোগ সৃষ্টি হয় না। সাতক্ষীরার মানুষও চায়, আর আমার স্ত্রীও আগ্রহী। সেজন্য স্ত্রীকে সাতক্ষীরার সংরক্ষিত মহিলা আসনের মনোনয়ন নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালে বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলনে উত্তাল সাতক্ষীরা সারাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এ সময় সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার হিসেবে আসেন চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির। তার যোগদানের পর থেকে ধীরে ধীরে অশান্ত সাতক্ষীরা শান্ত হয়। বর্তমানে তিনি রাজধানীর র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্বরত আছেন।

পিডিএসও/অপূর্ব