চাঁদপুরে সড়কে ঝরল ৩ প্রাণ

প্রকাশ : ২২ অক্টোবর ২০১৮, ০৯:২৪ | আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০১৮, ১৪:২৭

হাজীগঞ্জ (চাঁদপুর) প্রতিনিধি

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় পিতা-পুত্রসহ তিনজন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় সিএনজি চালকসহ দুজন গুরুতর আহত হয়েছেন। সোমবার ভোর রাতে উপজেলার বাকিলা ইউনিয়নের চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের গোগরা এলাকায় অজ্ঞাত পরিবহনের চাপায় সিএনজিচালিত স্কুটারে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন—শাহরাস্তি উপজেলার টামটা দক্ষিণ ইউনিয়নের উয়ারুক গ্রামের পাটওয়ারী বাড়ির এলেম হোসেন (৪৮), তার ছেলে ইকরাম হোসেন (২৫) এবং একই ইউনিয়নের সুরসুই গ্রামের কাজী বাড়ির আবু সুফিয়ান (৪০)। দুর্ঘটনায় আহতরা হলেন—উয়ারুক গ্রামের বিল্লাল হোসেন পাটওয়ারী (৪৫) ও সিএনজি (স্কুটার) চালক শাহজাহান (৩৮)। আহত দুজনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা যায়। দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বৈশাখী বড়ুয়া।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ ভোর ৪টায় চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের হাজীগঞ্জ উপজেলার বাকিলা ইউনিয়নের গোগরায় সিএনজি স্কুটারকে (চাঁদপুর-থ ১১-৬৩০০) উল্টো অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়দের ডাক-চিৎকারে লোকজন ভিড় করে। পরে হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ এবং চাঁদপুর ও হাজীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের দমকল কর্মীরা আহত বিল্লাল হোসেন ও সিএনজিচালক শাহজাহানকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে এবং নিহত তিনজনের লাশ পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

উয়ারুক বাজারের গাউছিয়া এগ্রো অ্যান্ড ফিশারিজের সত্ত্বাধিকারী হুমায়ুন কবির মিলন জানান, আমিসহ রাতে চাঁদপুরে মেঘনা নদীতে মাছ শিকারে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আমার জরুরি কাজ থাকায় রোববার দিবাগত রাত ৩টার পরে এলেম ভাই ও তার ছেলে ইকরাম, সুফিয়ান ও বিল্লাল ভাই মাছ শিকারে উয়ারুক বাজার থেকে চাঁদপুরের উদ্দেশে রওনা দেয়। আজ ভোরে দুর্ঘটনায় তাদের নিহতের কথা জানতে পেরে হাজীগঞ্জ থানায় ছুটে আসি।

হাজীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জয়নাল আবেদীন জানান, ধারণা করা হচ্ছে কাভার্ড ভ্যান বা ট্রাক সিএনজিকে পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে সিএনজির উপর দিয়ে গাড়ি চলে যায়। এতে করে সিএনজির পেছনের সিটে বসা পিতা-পুত্রসহ একই এলাকার তিনজন মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলে নিহত হয়।

থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, পিতা-পুত্রসহ নিহত তিনজনের লাশ থানা হেফাজতে রয়েছে এবং গুরুতর আহত দুজন চাঁদপুর সদর হাসপতালে চিকিৎসাধীন। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতদের মরদেহ চাঁদপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে এবং আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পিডিএসও/হেলাল