রাজশাহীতে পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভ

রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি আ.লীগের : বিএনপির প্রত্যাখান

প্রকাশ : ১০ অক্টোবর ২০১৮, ২১:১২

রাজশাহী ব্যুরো

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায় নিয়ে রাজশাহী নগরীতে পাল্টাপাল্টি বিক্ষোভ মিছিল করেছে আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি। আদালতের ঘোষিত রায়ে আওয়ামী লীগ সন্তোষ প্রকাশ করলেও তারেক রহমানের ফাঁসির আদেশ না হওয়ায় পুনরায় আপিলের মাধ্যমে তারেকের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে দলটি। আর রায় প্রত্যাখান করে বিক্ষোভ করেছে রাজশাহী মহানগর বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠন। একই দাবিতে রাজশাহী নগরীতে বৃহস্পতিবারও পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি পালন করবে বলে জানা গেছে। 

বুধবার রায় ঘোষণার পর পরই সন্তোষ প্রকাশ করলেও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ফাঁসির দাবিতে মহানগরীতে বিক্ষোভ মিছিল করে আওয়ামী লীগ। নগরীর কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের হয়ে সাহেব বাজার জিরো পয়েন্টসহ বিভিন্ন প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়। এরপর সেখানে সংক্ষিপ্ত পথসভা করে।
  
পথসভায় মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, এ রায়ে আমরা সন্তুষ্ট। তবে তারেক রহমানের ফাঁসির আশা করেছিলাম। তাহলে শহীদদের আত্মা শান্তি পেত। এই রায়ের দ্রুত বাস্তবায়ন চাই। না হলে দেশে যদি আবারও মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতবিরোধী চক্র ক্ষমতায় আসে তাহলে এ রায় বাস্তবায়ন হতে দেবে না।
 
কর্মসূচিতে রাজশাহী মহানগর সহ-সভাপতি সৈয়দ শাহাদাত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাইমুল হুদা রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুজ্জামান আজাদ ও অ্যাডভোকেট আসলাম সরকার, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোসাব্বিরুল ইসলামসহ আওয়ামী লীগ ও তার বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে রায় ঘোষনার পর তা প্রত্যাখান করে নগরীর মালোপাড়াস্থ বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ও অলোকার মোড় থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। তখন তারা সেখানেই তাৎক্ষনিক সমাবেশ করে। 

সমাবেশে বক্তব্য দেন, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক রাসিক মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, কেন্দ্রীয় কমিটির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিন শওকত, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন প্রমুখ।

অন্যদিকে, নগরীর অলোকার মোড়ে জেলা বিএনপির সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন তপুর নেতৃত্বে দলটির নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করার চেষ্টা করলে পুলিশি বাধায় তা পণ্ড হয়ে যায়। চাঞ্চল্যকর এই মামলার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে বুধবার সকাল থেকেই রাজশাহী নগরীতে সতর্ক অবস্থানে ছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। 

পিডিএসও/এআই