এক শিক্ষকের স্বপ্নের হেলিকপ্টার!

প্রকাশ : ০৯ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:৩৫ | আপডেট : ০৯ অক্টোবর ২০১৮, ১৬:০৬

দৌলতপুর (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে শিক্ষক শামীম হেলকপ্টারটি উড়ানোর জন্য ইঞ্জিনে জ্বালানি ভরছেন

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার কোলদিয়াড় পূর্বপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামীম নিজ অর্থায়নে হেলিকপ্টার বানানোর চেষ্টা করছেন। এই চেষ্টায় তার সামান্য হলেও সফলতা মিলেছে। তার তৈরি করা হেলিকপ্টারটি মাটি থেকে আধা ফুট উঁচুতে উঠতে পারে।

প্রধান শিক্ষক শামীমের সঙ্গে কথা বলে জানা য়ায়, তিনি ছোটবেলা থেকেই হেলিকপ্টার বানানোর কথা চিন্তা করতেন। কিন্তু নানা প্রতিকূলতার কথা ভেবে শুরু করতে পারেননি। পরে ২০১৬ সাল থেকে তিনি নিজেই শুরু করেছেন হেলিকপ্টার বানানোর কাজ।

তিনি বলেন, ‘এ পর্যন্ত ২০১৬ সাল থেকে দুই বছর সময়ে আংশিকভাবে তৈরি করতে পেরেছি আমার স্বপ্নের হেলিকপ্টার। আমার তৈরি করা হেলিকপ্টারটিতে যে ইঞ্জিন লাগানো আছে, সেটার উড্ডয়ন শক্তি মাত্র মাটি থেকে ৫-৬ ইঞ্চি।

হেলিকপ্টারটির জ্বালানি হিসেবে পেট্রল ব্যবহার করেন।’ তিনি আরো বলেন, এটাকে আরো উপরে উঠাতে হলে উন্নত মানের ইঞ্জিন দরকার। যার মূল্য প্রায় চার-পাঁচ লাখ টাকা, যেটা তার একার পক্ষে বহন করা অসম্ভব। কিন্তু তিনি বসে থাকবে না এটাকে আরো ওপরে উঠানোর জন্য সরকারি-বেসরকারি সহযোগিতা কামনা করছেন। যাতে করে তার স্বপ্ন পূরণ করতে পারেন তিনি।

এদিকে উন্নয়ন মেলা ২০১৮-তে দৌলতপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসের স্টলে তার তৈরি করা হেলিকপ্টারটি স্থান পায়। সে সময় উপজেলা শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবেদীন তার এই উদ্ভাবন দেখে সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

পিডিএসও/তাজ