‘আটকে পড়া পাকিস্তানিদের ভোটাধিকার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী’

প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:২২ | আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৩২

রংপুর ব্যুরো

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি বলেছেন, বাংলাদেশে আটকে পড়া পাকিস্তানি বিহারীরা এখন বাংলাদেশের নাগরিক। তারা এখন আর পাকিস্তানি না, এখন তারা বাংলাদেশী। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে আটকেপড়া পাকিস্তানিদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভোটাধিকার দিয়েছেন, সুতরাং তাঁরা এখন বাংলাদেশের নাগরিক। নাগরিক হিসেবে সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা পাবেন। 

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভোটাধিকার দিয়েছেন বলেই আজকে হারুন অর রশীদের মতো অনেকেই জনপ্রতিনিধিত্ব করছেন। বাংলাদেশে আটকেপড়া পাকিস্তানিদের দেখভাল এবং জীবনমান উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করছেন, ভবিষতে আরো কাজ করবেন।

শনিবার রংপুরের জেলা পরিষদের হলরুমে ২৮ আগষ্ট এসপিজিআরসি’র প্রধান পৃষ্টপোষক আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মরহুম আলহাজ্ব এম. নাসিম খাঁনের ১৩তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে আটকেপড়া পাকিস্তানি বিহারী মুসলিমদের নেতা এসপিজিআরসি’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক আলহাজ্ব এম নাসিম খান ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অত্যন্ত কাছের মানুষ। তিনি বাংলাদেশকে ভালোবেসেছিলেন বলেই বাংলাদেশেই থেকে গেছেন। 

এসপিজিআরসি এর আয়োজিত স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন এসপিজিআরসি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আব্দুল জব্বার খান। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিউর রহমান সফি, সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ৩২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজান, এসপিজিআরসি কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সওকত আলী, সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোকছেদ মমিন, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান ও শ্রমিক নেতা আকতার হোসেন বাদল, যুবলীগ সভাপতি দিলনাওয়াজ খান, এসপিজিআরসির সৈয়দপুর আঞ্চলিক শাখার সভাপতি রিয়াজ আকবরসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। 

এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন এসপিজিআরসি এর কেন্দ্রীয় নেতা ও এসপিজিআরসি’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক আলহাজ্ব এম নাসিম খানের ছোট ছেলে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ২৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হারুন অর রশীদ। এর আগে সকালে সৈয়দপুর থেকে সরাসরি এসপিজিআরসি’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান পৃষ্ঠপোষক আলহাজ্ব এম নাসিম খান এর কবরস্থানে পৌছে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানান, পরে কবর জিয়ারত করেন। 

এ সময় রাজধানীর পল্লবী মিরপুর ১০ ও ১১ সেকশনের এসপিজিআরসি ও ওয়েল ফেয়ার মিশন অফ বিহারীজ বাংলাদেশ পল্লবী মিরপুর সেকশন ১১ এর নেতৃবৃন্দও মরহুম আলহাজ্ব নাসিম খানের কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন ও কবর জিয়ারত করেন। কবর জিয়ারত শেষে এসপিজিআরসি’র কার্যালয়ে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময় শেষে ইস্পাহানি ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। 

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে এসপিজিআরসি রংপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন, সহ-সম্পাদক সরফুদ্দিন আহমেদ, অর্থ সম্পাদক নাসিম শেখ, প্রচার সম্পাদক আলী আহমেদ, অফিস প্রধান মোঃ তৈয়ুব হোসেন, সদস্য মঞ্জুর আহমেদ, সামসুল হক, জসিম, রাফাখাত হোসেন মুন্না ও জাভেদ হোসেন।

এদিকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয় পরিদর্শন করেন এবং মহানগর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে আলোচনা করেন। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আবুল কাশেম, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বকসি, প্রচার সম্পাদক রোজি রহমান, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট দিলশাদ মুকুল, উপ-দপ্তর সম্পাদক শফিকুল ইসলাম রাহেল, রংপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নাছিমা জামান ববি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম প্রামাণিক, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক কামরুজ্জামান শাহীন, জেলা মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাকিয়া সুলতানা চৈতি, মহিলা লীগের নেত্রী পারভীন আক্তার, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান রনি, ২৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাজাদা আরমান, সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ কাওছার মামুন, ২৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল গণি দুলাল, সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ সনুসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

পিডিএসও/এআই