সাতক্ষীরায় হত্যাচেষ্টা মামলায় যুবক কারাগারে

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:০৬

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

সাতক্ষীরায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলার প্রধান আসামি আশাশুনি উপজেলার মাড়িয়ালা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক শামীমুজ্জামান পালাশকে (৪০) কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে সাতক্ষীরা আদালতে জামিনের আবেদন জানালে আদালত তা না’মঞ্জুর করেন। এসময় অপর চার আসামির জামিন মঞ্জুর করেন আদালত।
 
মামলার আসামিরা হলেন— আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের মাড়িয়ালা গ্রামের আমীর হোসেন জোয়ার্দ্দারের ছেলে মো. শামীমুজ্জামান পলাশ, থানাঘাটা গ্রামের ছহিলউদ্দীন সরদারের ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন, আব্দুল বারি মোড়লের ছেলে আবুল কালাম, খালেক মোড়লের ছেলে আবু হাসান, অজিয়ার রহমানের ছেলে অহিদুল্লাহ কামাল। এর মধ্যে মামলার প্রধান আসামি শামীমুজ্জামান পালাশকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।
 
মামলা বাদী শ্রীউলা ইউনিয়নের বকচরা গ্রামের শহিদুল্লাহ জানান, ২০১৮ সালের ২৮ এপ্রিল শামীমুজ্জামান পলাশের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী বাহিনীরা আমার মেজো ভাই আব্দুল হাকিমের উপর হামলা করে কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় ওই সালের ৫ মে হত্যাচেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে সাতক্ষীরা আমলী আদালত-৮ এ মামলা দাখিল করি।
 
তিনি আরও বলেন, মামলার প্রধান আসামি একজন সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন সময়ের ৮ টি মামলা রয়েছে। যার বাদী এলাকার বিভিন্ন মানুষ। এছাড়া আসামি শামীমুজ্জামান এলাকায় চিহ্নিত মাদকব্যবসায়ী ও মাদকসেবী হিসেবে পরিচিত। এলাকার মানুষ তার অত্যাচারে অতিষ্ট। বিভিন্ন সময় মানুষদের মারপিট করে। শিক্ষক হয়েও বিদ্যালয়ে যায় না। এমন শত শত অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। 

আদালতে আইনজীবী অ্যাড. আব্দুল মজিদ বলেন, দীর্ঘ পর্যালোচনা করে আসামিদের বিরুদ্ধে আদালত ওয়ারেন্ট জারি করে। বৃহস্পতিবার আদালতে মামলার ৫ জন আসামি হাজির হয়ে জামিনের আবেদন জানালে আদালত প্রধান আসামি শামীমুজ্জামানকে কারাগারে পাঠিয়েছেন।

পিডিএসও/এআই