নিখোঁজ কৃষকের বস্তাবন্দি মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশ : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:৫৫

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের চিতলমারীতে নিখোঁজের দুইদিন পর মাছের ঘের থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় আনোয়ার শেখ (৫৫) নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে জেলার চিতলমারী উপজেলার বড়বাড়িয়া ইউনিয়নের মাছুয়ারকুল গ্রামের একটি ঘের থেকে ওই ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

দুর্বৃত্তরা আনোয়ার শেখকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে তার মরদেহ বস্তাবন্দি করে মাছের ঘেরে ফেলে দিয়েছে বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারনা করছে। তবে কারা কি কারনে তাকে হত্যা করেছে তা পুলিশ নিশ্চিত করতে পারেনি। রোববার সকালে ময়না তদন্তের জন্য তার মরদেহ বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে সুমন শেখ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে চিতলমারী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। আনোয়ার শেখ চিতলমারী উপজেলার কলাতলা ইউনিয়নের কাননচর গ্রামের মৃত হেমায়েত শেখের ছেলে।

পরিবারের বরাত দিয়ে চিতলমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অনুকুল চন্দ্র সরকার বলেন, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে আনোয়ার শেখ বাড়ি থেকে স্থানীয় কাননচর বাজারে যান। এরপর তিনি আর বাড়িতে ফেরেননি। নিখোঁজের দুইদিন পর আনোয়ারের বাড়ি থেকে ২০/২২ কিলোমিটার দূরে শনিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন মাছের ঘেরে একটি মরদেহ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ সেখানে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে। নিহতের পরিবার তাকে সনাক্ত করেছেন। তিনি পেশায় কৃষক ছিলেন। দুর্বৃত্তরা তাকে পরিকল্পিতভাবে শ্বাসরোধে হত্যা করে বস্তাবন্দি করে মাছের ঘেরে ফেলে রেখে গেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করছি। এই ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

কারা কি কারনে তাকে হত্যা করেছে তা পুলিশ নিশ্চিত হতে তদন্ত শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা।


পিডিএসও/এআই