প্রেমিকের সঙ্গে অভিমান করে কিশোরীর আত্মহত্যা

প্রকাশ : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:০৮

পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি

নরসিংদীর পলাশে প্রেমিকের সঙ্গে অভিমান করে তানিয়া আক্তার (১৭) নামে এক কিশোরীর আত্মহত্যার খবর পাওয়া গেছে। সে পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল পৌরসভার বালুচরপাড়া গ্রামের বাবুল মিয়ার মেয়ে। তানিয়া আক্তার প্রাণ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে শ্রমিকের কাজ করতেন। 

এ ঘটনায় শনিবার সকালে নিহতের বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করেছেন। 

তানিয়ার বাবা বাবুল মিয়া জানান, সংসারে অভাব-অনটনের কারণে তানিয়া প্রাণ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে কাজ করতো। কর্মক্ষেত্রে শাকিল নামে এক যুবকের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। একসময় সে শাকিলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। দীর্ঘ এক বছর ধরে তাদের প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিলো। 

তিনি জানান, আমরা জানতে পারলে শাকিলকে তার পরিবারের সঙ্গে কথা বলে পরিবার নিয়ে আসতে বলি। শুক্রবার সন্ধ্যায় শাকিল তার পরিবারের ১৩ জন সদস্য নিয়ে আমাদের বাড়িতে এসে তানিয়াকে দেখে পছন্দ করে যায়। কিন্তু এর কিছুক্ষণ পরেই শাকিল তানিয়ার মোবাইলে কল দিয়ে কি যেনো বলে। কিছুক্ষণ পর তানিয়া মোবাইলটি বড় বোনের কাছে দিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে গলার ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আমরা তানিয়াকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. হারুন অর রশিদ তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মকবুল হোসেন মোল্লা জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পিডিএসও/এআই