বিজিবির যৌথ অভিযানে ৫৯টি ভারতীয় গরু আটক

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৮, ১৮:১৯

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

লালমনিরহাটের পাটগ্রামে অবৈধভাবে ভারত থেকে আনা ৫৯টি গরু আটক করেছে বিজিবির নেতৃত্বে পরিচালতি একটি যৌথ দল। পৌর শহরের রসুলগঞ্জহাট এলাকার দুটি বাড়িতে শনিবার রাতে রংপুর ৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্ণেল মো. মহিউস সুন্নাহ‘র নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে গরুগুলো জব্দ করা হয়। যৌথ অভিযানে রংপুর ৬১ বিজিবি ছাড়াও পাটগ্রামের ইউএনও নূর কুতুবুল আলম এবং পুলিশের একটি দল অংশ নেয়। আটকৃত ভারতীয় এসব গরুর বাজার মূল্য প্রায় ২০ লাখ টাকা বলে জানিয়েছে বিজিবি। সীমান্ত জেলা লালমনিরহাটে অতীতে একসাথে এতগুলো গরু আটকের ঘটনা ঘটেনি বলে একাধিক সুত্রে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রংপুর ৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লে. কর্ণেল মো. মহিউস সুন্নাহ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা নিয়ে ওই ৫৯টি গরু জব্দ করা হলেও এগুলোর মালিক পলাতক রয়েছে। পাটগ্রামের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে এসব গরু অবৈধভাবে ভারত থেকে দেশে আনা হয়েছিল। আটক গরু গুলো কাস্টমসের মাধ্যমে নিলামে বিক্রি করে প্রাপ্ত অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

এলাকাবাসী ও সংশ্লিষ্ট একাধিক সুত্র মতে জানা গেছে, সীমান্ত পথে অবৈধভাবে ভারত থেকে আনা ওই গরুগুলো পাটগ্রামের রসুলগঞ্জ হাটের অদূরে স্থানীয় আজগর ও সোবাহানের বাড়িতে মজুদ করে রাখে চোরাকারবারিরা। এসব গরু পরবর্তীতে হাটে বিক্রি করে একপ্রকার বৈধতা আদায়ের চেষ্টা চলছিল বলে জানা গেছে । কিন্তু তার আগেই শনিবার রাতে পাটগ্রাম ইউএনও নূর-কুতুবুল আলমসহ একদল পুলিশ নিয়ে সেখানে অভিযান চালিয়ে মোট ৫৯ টি গরু আটক কওে বিজিবি। এসব গরু এখন বিজিবির তথ্যবাধায়নে আছে বলে জানিয়েছেন পাটগ্রাম থানার ওসি আরজু মো, সাজ্জাদ।

পাটগ্রামের ইউএনও নূর কুতুবুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘রংপুর বিজিবি-৬১  ব্যাটালিয়নের পরিচালকসহ আমি নিজে ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে ভারতীয় ৫৯টি আটক গরু জব্দ করেছি।  এসব গরু কাস্টমসের মাধ্যমে নিলামে বিক্রির ব্যবস্থা করবে বিজিবি।”

পিডিএসও/রানা