ভারতে পাচারের সময় ৩৭ কেজি সোনা জব্দ

প্রকাশ : ২৫ এপ্রিল ২০১৮, ২১:৩০

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গায় বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি) সদস্যরা ৩৭ কেজি (৩২০টি বার) সোনার বিশাল চালান জব্দ করেছে। এগুলো বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচার করা হচ্ছিল বলে জানিয়েছে বিজিবি। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি।

৬ বিজিবির অতিরিক্ত পরিচালক মেজর লুৎফুল কবীর জানিয়েছেন, চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার সুলতানপুর সীমান্ত হয়ে বাংলাদেশ থেকে সোনার বড় একটি চালান ভারতে যাবে— বিশ্বস্ত সূত্রে এমন খবর পান তিনি। সে অনুযায়ী সুলতানপুর সীমান্তচৌকির (বিওপি) বিজিবি সদস্যরা সকাল থেকেই সীমান্তের শূন্যরেখার কাছাকাছি মাথাভাঙ্গা নদীর তীরে ওতপেতে থাকেন।

বেলা পৌনে ২টার দিকে বিজিবি সদস্যরা তিনজনকে নদী সাঁতরে বাংলাদেশ থেকে ভারত অভিমুখে যেতে দেখেন। ওই সময় বিজিবি সদস্যরা তাদের থামতে বললে তিনজনই নদীতে ঝাঁপ দেন। তাদের মধ্যে একজন সোনার বার বহনের জন্য বিশেষভাবে তৈরি বেল্ট ফেলে যান। বিজিবি সদস্যরা বেল্টের ভেতরে সোনার বার দেখতে পেয়ে ব্যাটালিয়ন সদর দফতরে খবর দেন। এরপর নদীতে লোক নামিয়ে পাচারকারীদের ফেলে যাওয়া আরো দুটি বেল্ট উদ্ধার করা হয়।

বিজিবির ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘তিনটি বেল্ট থেকে মোট ৩২০টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। পরে বিজিবি, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে মেপে সেগুলোর ওজন দাঁড়ায় ৩৭ কেজি। যার দাম ১৬ কোটি টাকা।’

৬ বিজিবির পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইমাম হাসান বলেন, ‘আটক সোনার বারগুলো জেলা ট্রেজারিতে জমা রাখা হবে। এ ঘটনায় দামুড়হুদা থানায় মামলা হয়েছে।’

পিডিএসও/তাজ