টঙ্গীতে ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে নিহত ৪ : আহত ৩০

প্রকাশ : ১৫ এপ্রিল ২০১৮, ১৩:০৭ | আপডেট : ১৫ এপ্রিল ২০১৮, ২২:১৬

অনলাইন ডেস্ক

গাজীপুরের টঙ্গীর নতুনবাজার এলাকায় একটি ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে অপর একটি ট্রেনের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটলে ৪ যাত্রী প্রাণ হয়েছেন। এই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৩০ জন। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি। জামালপুর থেকে ঢাকাগামী জামালপুর কমিউটার ট্রেন ও ঢাকা থেকে জয়দেবপুরগামী ডেমু ট্রেনের সঙ্গে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আজ রোববার বেলা সাড়ে ১২টা নাগাদ এই দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর থেকে ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। টঙ্গী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক মো. দেলোয়ার হোসেন গণমাধ্যমকে এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এদিকে হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। 
জানা যায়, সকালে জামালপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ট্রেনটি টঙ্গীর নতুন বাজার এলাকার আউটার সিগনালে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনার শিকার হয়। খবর পেয়ে টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশন ও ঢাকা রেলওয়ে থানা পুলিশ এবং স্থানীয় লোকজন দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিকে প্রেরণ করে।
জামালপুর কমিউটার ট্রেনের টিসি মাসুদ জানান, টঙ্গী স্টেশনে ট্রেন আসার পর ২নম্বর লাইন দিয়ে ট্রেন চলাকালীন সময়ে পেছনের কয়েকটি বগিতে প্রচন্ড ঝাঁকুনি অনুভব করি। এসময় ২নম্বর লাইন থেকে পেছনের কয়েকটি বগি এক নম্বর লাইনে চলে যায় এবং বগিগুলো দুমরেমুচড়ে পড়ে যায়। যাত্রীরা ভয়ে চিৎকার করতে থাকে। আমি নিচে নেমে দেখি ৪ জন যাত্রী ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে মারা গেছে এবং অনেক যাত্রীকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। দুর্ঘটনার পর ঢাকার সাথে সব ট্রেনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।
খবর পেয়ে রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক, গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট আজমত উল্লা খান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র প্রার্থী এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম ও গাজীপুর জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

পিডিএসও/তাজ/মুস্তাফিজ