৭৩০ দিনের ছুটির আবেদন!

প্রকাশ : ২৯ আগস্ট ২০১৮, ১৩:১৩ | আপডেট : ২৯ আগস্ট ২০১৮, ১৩:২৩

অনলাইন ডেস্ক

অফিসে কাজ করতে গিয়ে বহু বসের সঙ্গেই বনিবনা হয় না কর্মীদের। অপছন্দের বস আছেন বলে কি চাকরি ছেড়ে দিতে হবে? কিংবা লম্বা ছুটি নিতে হবে? এমনটিই ঘটেছে পাকিস্তানে।

বস ভালো নয়, এই যুক্তিতে লম্বা ছুটি নিয়ে নিলেন এক কর্মী। এক-দুদিনের নয়, একেবারে টানা ৭৩০ দিনের ছুটির আবেদন করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন ওই ব্যক্তি। নতুন বসের অধীনে কাজ করা যাচ্ছে না, সেইজন্যই নাকি এমন সিদ্ধান্ত। ওই কর্মীর ছুটির অ্যাপ্লিকেশনই এখন ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পাকিস্তানের নতুন রেলমন্ত্রীকে পছন্দ হয়নি দেশটির এক রেলকর্মীর। সেইজন্যই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তানের এক রেলকর্মী। তিনি সাধারণ কর্মী নন, পাকিস্তানের রেলের চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার, নাম মহম্মদ হানিফ গুল। তিনি জানিয়েছেন, নতুন মন্ত্রী খুবই অপেশাদার এবং তার ব্যবহারও খারাপ। ছুটির আবেদনে তিনি লিখেছেন, পাকিস্তানের সিভিল সার্ভিসের একজন সদস্য হিসেবে ওনার অধীনে কাজ করা আমার পক্ষে সম্ভব নয়।

গত ২০ আগস্ট ইমরান খানের সরকারের মন্ত্রীরা শপথ নেন। সেখানেই শপথ নেন রেলমন্ত্রী শেখ রশিদ। তার বিরুদ্ধে দুর্ব্যবহারের অভিযোগ এনেছেন ওই রেলকর্মী। অনেকেই বিষয়টাকে মজা হিসেবে দেখেছেন, আবার অনেকে বলেছেন, প্রয়োজনে টাকা ছাড়া ছুটি নিন ওই ব্যক্তি। পাকিস্তানের জিও টিভির রিপোর্ট অনুযায়ী, ওই ব্যক্তিকে চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজারের পোস্ট থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। তার জায়গায় আগা ওয়াসিম নামে নতুন একজনকে নিয়োগও করা হয়েছে।

পিডিএসও/হেলাল