বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর ২ দিন বন্ধের পর সচল

প্রকাশ : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৭:২৮

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি

কাস্টমস পারমিট নিয়ে দুদেশের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টদের বেনাপোল ও পেট্রাপোলে স্থলবন্দর চালু করার ঘোষণার পরে বৃহস্পতিবার ফের আমদানি রফতানি শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আবারও সচল হয়েছে বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম।

গত মঙ্গলবার সকাল থেকে ভারতীয় বিএসএফ কর্তৃক সিঅ্যান্ডএফ স্টাফদের দুদেশের চেকপোস্টে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করার আমদানি-রফতানি কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। সকালে প্রশাসন ও বাণিজ্যের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দুই দেশের প্রতিনিধিদের মধ্যে সন্তোষজনক আলোচনা শেষে আমদানি-রফতানি সচল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টস স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুর রহমান বলেন, আগামী ২০ মার্চ পর্যন্ত পূর্বের নিয়মে দুদেশের সিঅ্যান্ডএফ স্টাফরা কাস্টমস পারমিট নিয়ে যাতায়াত করবে। এর মধ্যে দুই পক্ষ আরও একবার আলোচনায় বসে এ বিষয়ে স্থায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বেনাপোল আমদানি-রফতানিকারক সমিতির সহসভাপতি আমিনুল হক বলেন, দুই দিন আমদানি বাণিজ্য বন্ধ থাকায় সরকারের প্রায় ৩০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়ে ব্যাহত হয়েছে। আর ব্যবসায়ীদের লোকসান হয়েছে ১০ কোটি টাকা। বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (প্রশাসন) আব্দুল জলিল জানান, ব্যবসায়ীরা যাতে তাদের আটকে থাকা পণ্য দ্রুত খালাস করতে পারেন তার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

প্রতিদিন বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারত থেকে ৪ থেকে সাড়ে ৪শ‘ ট্রাক বিভিন্ন পণ্য আমদানি এবং দেড়শ থেকে ২শ‘ ট্রাক পণ্য রফতানি হয়ে থাকে। প্রতিবছর এ বন্দরে আমদানি পণ্য থেকে সরকার প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব পেয়ে থাকে।

পিডিএসও/তাজ