বাংলাদেশের পণ্যের প্রতি কোরীয়দের আগ্রহ বাড়ছে

প্রকাশ : ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ১৬:১৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশের পণ্যের প্রতি কোরীয়দের আগ্রহ ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা আগামীতে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে সাংস্কৃতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ককে আরো সুদৃঢ় করবে।

গত ১২ থেকে ১৩ অক্টোবর দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়ংসান এলাকার ইতেওয়ানে অনুষ্ঠিত ‘ইতেওয়ান গ্লোবাল ভিলেজ ফেস্টিভ্যাল ২০১৯’-এ সিউলে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস অংশগ্রহণ করায় এ আগ্রহ বৃদ্ধি পাচ্ছে। গতকাল এক তথ্য বিবরণীতে এ কথা জানানো হয়।

সিউলের পর্যটন এলাকা হিসেবে খ্যাত ইতেওয়ানের এই আন্তর্জাতিক উৎসবে এ বছর বাংলাদেশসহ ৩৭টি দেশ অংশগ্রহণ করে। বাংলাদেশ দূতাবাস এই আন্তর্জাতিক উৎসবের ‘বিশ্ব সাংস্কৃতিক আয়োজন’-এর গ্লোবাল প্যারেডে এবং ‘বিশ্ব হস্তশিল্প মেলায় অংশ নেয়। উৎসবটি প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল।

ইয়ংসানের মেয়র জাং হিয়ন-সং গত ১২ অক্টোবর ‘ইতেওয়ান গ্লোবাল ভিলেজ ফেস্টিভ্যাল ২০১৯’-এর উদ্বোধন করেন। এই অনুষ্ঠানে দক্ষিণ কোরিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতসহ অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর রাষ্ট্রদূত ও কূটনৈতিকরা উপস্থিত ছিলেন।

ওইদিন বিকেল ৩টায় এ উৎসবের ‘বিশ্ব সাংস্কৃতিক আয়োজন’-এর গ্লোবাল প্যারেডে শিশুসহ দূতাবাসের সব সদস্য বর্ণাঢ্য ঐতিহ্যবাহী বাংলাদেশি পোশাকে সজ্জিত হয়ে, ঢোল, ফেস্টুন, বাংলাদেশের পতাকাসহ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে।

এ ছাড়া উৎসবের বিশ্ব হস্তশিল্প মেলার বাংলাদেশের স্টলে ঐতিহ্যবাহী পাটজাত ও বাঁশজাত দ্রব্যাদি, বাঁশি, লাটিম, হাতপাখা, নকশিকাঁথা, কাঠের পুতুলসহ বাংলাদেশের পর্যটনশিল্প ও বিনিয়োগ-সংক্রান্ত বিভিন্ন লিফলেট বিতরণ করা হয়।

পিডিএসও/তাজ