বললেন স্বাস্থ্যশিক্ষা সচিব

ই-সিগারেট নিষিদ্ধের কথা ভাবছে সরকার

প্রকাশ : ০৩ অক্টোবর ২০১৯, ২০:১০ | আপডেট : ০৩ অক্টোবর ২০১৯, ২০:৩৫

অনলাইন ডেস্ক

ইলেকট্রনিক সিগারেটসহ সব ধরনের ধূম্র উদ্গীরক তামাক পণ্যের উৎপাদন, আমদানি ও বিক্রি বন্ধ নিষিদ্ধ করার কথা ভাবছে সরকার। বৈশ্বিক তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে স্বাস্থ্যে ক্ষতিকর প্রভাব তুলে ধরে বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য শিক্ষা সচিব শেখ ইউসুফ হারুন এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘ই-সিগারেটসহ নতুন ধরনের সব তামাক পণ্যের উৎপাদন, আমদানি ও বিক্রি যত দ্রুত সম্ভব নিষিদ্ধ করতে হবে। শীর্ষ পর্যায়ের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এ বিষয়ে আমরা আলোচনা করব।’ 

স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা তুলে ধরে সম্প্রতি ভারত ই-সিগারেট নিষিদ্ধ করে। এর আগে শ্রীলঙ্কা, নেপাল, থাইল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরসহ ৩০টির বেশি দেশের এসব তামাক নিষিদ্ধের কথা তুলে ধরেন। সচিব বলেন, ‘বৈশ্বিক অভিজ্ঞতা আমাদের কাজে লাগাতে হবে।’

দেশে ১৫ বছর ও তদূর্ধ্ব বয়সি ৩৫ শতাংশের বেশি মানুষ কোনো না কোনো ধরনের তামাক সেবন করে। তবে ই-সিগারেটের প্রভাব নিয়ে বলার মতো কোনো পরিসংখ্যান নেই।

যুক্তরাষ্ট্রের হিসাবে, ২০১৭ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে তাদের স্কুলের শিশুদের মধ্যে ই-সিগারেট সেবনের হার ৭৮ শতাংশ বেড়েছে। ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৮০৫ জনের ফুসফুসের রোগে আক্রান্ত হওয়া ও ১২ জনের মৃত্যুর পেছনে ই-সিগারেট ও ধূম্র উদ্গীরক তামাকের ভূমিকা আছে।

পিডিএসও/তাজ