চামড়া শিল্পের সমস্যা আপাতত নেই : শিল্পমন্ত্রী

প্রকাশ : ১৮ আগস্ট ২০১৯, ২১:০৬ | আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০১৯, ২২:০১

অনলাইন ডেস্ক

বকেয়া পাওনা থাকা সত্ত্বেও ট্যানারিগুলোর কাছে কাঁচা চামড়া বিক্রি করবে বলে নতুন সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন আড়তদাররা।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক শেষে আড়তদারদের চামড়া বিক্রির বিষয়ে রাজি করানোর পর শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ হুমায়ুন বলেছেন, চামড়া শিল্পে সমস্যা আপাতত আর নেই।

রোববার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চামড়া শিল্প সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের বৈঠকের পর আড়তদারদের সংগঠন বাংলাদেশ হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন বলেছেন, তারা এখন থেকে কাঁচা চামড়া বিক্রি শুরু করবেন।

আর যেসব বকেয়া পাওনার দাবিতে তারা ট্যানারিগুলোতে চামড়া বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, সে বিষয়ে ২২ অগাস্ট এফবিসিসিআইর বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে বলে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘চামড়া শিল্পে সমস্যা আপাতত নাই। আজ থেকে তারা চামড়া বিক্রি শুরু করবে। আগামীতে যে সমস্যাগুলো আছে, তা ২২ তারিখে সমাধান করে দেবে।’

ট্যানারিগুলোর কাছে বকেয়ার বিষয়ে দেলোয়ার বলেন, মাননীয় মন্ত্রী ও উপদেষ্টা মহোদয় এফবিসিসিআইকে দায়িত্ব দিয়েছেন। আগামী ২২ আগস্ট এফবিসিসিআইয়ের উদ্যোগে এ নিয়ে আলোচনা হবে দুই পক্ষের মধ্যে। সেখান থেকেই ফয়সালা করে দেবে।

আরও পড়ুন : কাঁচা চামড়া বিক্রি শুরু করবেন আড়তদাররা

এদিকে, এবার কাঁচা চামড়ার দর দেখে হতাশ মৌসুমি ব্যবসায়ীরা শুধু চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন এলাকায় লাখখানেক পশুর চামড়া সড়কে ফেলে যান। দিনাজপুর, শেরপুরেও অনেক চামড়া এভাবে ফেলে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে শিল্পমন্ত্রী বলেন, এবার ১০ হাজার চামড়া নষ্ট হয়েছে বলে ব্যবসায়ীরা বৈঠকে হিসাব দেখিয়েছেন।

এর আগে আড়তদাররা শনিবার ঘোষণা দিয়েছিলেন, ট্যানারিগুলোর কাছে তাদের শত শত কোটি টাকা পাওনা। সেই টাকা না পেলে তারা এবার কাঁচা চামড়া ট্যানারিগুলোতে বিক্রি করবেন না।

ফলে চামড়া নিয়ে সৃষ্ট সংকট নিরসনে রোববার বিকালে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান এবং শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের উপস্থিতিতে চামড়া খাতের সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের বৈঠকের পর নতুন সিদ্ধান্তে আসেন আড়তদাররা।

পিডিএসও/তাজ