অর্থনৈতিক অঞ্চলে টার্গেট ১ কোটি কর্মসংস্থান

প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৯, ০৯:৩০

শাহজাহান সাজু

অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ ক্রমেই বাড়ছে। জমি পাওয়া সাপেক্ষে এ পর্যন্ত সারা দেশে সরকারি, বেসরকারি ও জিটুজি পদ্ধতিতে ৮৮টি অর্থনৈতিক অঞ্চলের অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা)। এ পর্যন্ত ১৫ দশমিক ০৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগের প্রস্তাব পাওয়া গেছে। তার মধ্যে ১২ দশমিক ৫ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ প্রস্তাব বেজার নির্বাহী বোর্ড অনুমোদন করেছে।

অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে এ পর্যন্ত ২৩ হাজার ৮২৩ জনের কর্মসংস্থান হয়েছে। বেজা ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ হাজার হেক্টর জমিতে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে অতিরিক্ত এক কোটি লোকের কর্মসংস্থানের এবং প্রতি বছর অতিরিক্ত ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সমপরিমাণের পণ্য উৎপাদন/রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। সরকারের মধ্যমেয়াদি সামষ্টিক অর্থনৈতিক নীতি বিবৃতিতে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, দেশের শিল্পায়ন সহজতর করতে বেজা কাজ করছে। বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করার জন্য অন্যান্য সুবিধাসহ কর ও বহিঃশুল্কে ছাড় এবং এফডিআই সিলিং অপসারণসহ অন্যান্য প্রতিযোগিতামূলক প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। শিল্পায়ন, কর্মসংস্থান, উৎপাদন এবং রফতানি সম্প্রসারণ ও বৈচিত্রায়নের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়ন দ্রুততর করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

নীতি বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, সরকার সঞ্চয় ও বিনিয়োগের হার বৃদ্ধিতে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে। কারণ এটি উচ্চ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। সরকার ধারাবাহিকভাবে সরকারি বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে এবং বিভিন্ন পদক্ষেপের মাধ্যমে বেসরকারি বিনিয়োগকে উৎসাহিত করার চেষ্টা করছে। যেমন—বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও পরিবহন খাতে অবকাঠামোগত সুবিধা নিশ্চিত করা এবং বৈদেশিক বিনিয়োগে প্রণোদনা প্রদান করা। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বিনিয়োগ জিডিপির ৩১ দশমিক ৫৬ শতাংশে পৌঁছাবে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

এতে আরো বলা হয়েছে, দারিদ্র্য নিরসন, জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন এবং ২০৩০ সাল নাগাদ এসডিজির লক্ষ্য অর্জনের ক্ষেত্রে কর্মসংস্থান সৃষ্টি অন্যতম অগ্রাধিকার প্রাপ্ত খাত হিসেবে বিবেচিত হবে। ২০১৬-১৭ সালের শ্রমশক্তি জরিপ অনুযায়ী দেখা যায়, সামগ্রিকভাবে কোরত্বের হার ৪ দশমিক ২ শতাংশ। তার মধ্যে পুরুষ ৩ দশমিক ১ শতাংশ এবং মহিলা ৬ দশমিক ৭ শতাংশ। তবে বেকারদের অধিকাংশই তরুণ। অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে গতি বৃদ্ধি করে তরুণদের জন্য কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতে সরকার দ্রুত শিল্পায়নের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এ উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিআইডিএ) এবং বেজা দেশে-বিদেশে বেসরকারি বিনিয়োগ বৃদ্ধির জন্য নিবিড়ভাবে কাজ করছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে চীন, ভারত, জাপানসহ উন্নত দেশগুলো থেকে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ প্রস্তাব পাওয়া গেছে। বিদেশি বিনিয়োগকারীদের এমন ব্যাপক আগ্রহ দেশের অর্থনীতিতে অমিত সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দেবে বলে প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।

পিডিএসও/হেলাল