মানবসম্পদ উন্নয়নে প্রশিক্ষণ দেবে চীন

প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ১১:০৮ | আপডেট : ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৪৩

নিজস্ব প্রতিবেদক
ঢাকার লেক শোর হোটেলে চীন দূতাবাসের আয়োজনে ফেলোশিপ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অতিথিরা

বাংলাদেশে মানবসম্পদ উন্নয়নে প্রশিক্ষণ দেওয়ার অঙ্গীকার দিয়েছে চীন। গত শুক্রবার ঢাকার লেক শোর হোটেলে বাংলাদেশে চীন দূতাবাসের আয়োজনে এক ফেলোশিপ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ অঙ্গীকার করেন দূতাবাসের ইকোনমিক অ্যান্ড কমার্শিয়াল কনস্যুলার লি গুয়াংজুন। 

অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ২০১৫ সালকে নিজেদের সংস্কার এবং নতুনভাবে উন্মুক্ত হওয়ার ৪০ বছর পালন করছে চীন। এ সময়ে দেশটি তার আর্থিক এবং সামাজিক খাতে দৃষ্টান্ত রাখার মতো উন্নতি করেছে। সমন্বিত শিল্প ব্যবস্থার মাধ্যমে এ মুহূর্তে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহতম অর্থনীতি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে চীন। নিজেদের উন্নতির পাশাপাশি পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে বিশ্বের অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশগুলোকে এগিয়ে নিতে চায় তার দেশ। এর অংশ হিসেবে চীন ‘বেল্ট অ্যান্ড রোড’ কর্মসূচি প্রণয়ন করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় চীন নিয়মিত বাংলাদেশকে মানবসম্পদ গড়তে নানারকম প্রশিক্ষণ সহযোগিতা প্রদান করে যাচ্ছে।

এ বছর বাংলাদেশের জন্য তিনটি কর্মশালার আয়োজক করেছে চীন। এর মধ্যে ছিল, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অঞ্চল এবং হাইটেক পার্কের উন্নয়ন এবং সহযোগিতা, চীন ও বাংলাদেশের মধ্যে বিদ্যুৎ সহযোগিতা এবং দুই দেশের মধ্যে ব্লু ইকোনমিবিষয়ক ফোরামসংক্রান্ত কর্মশালা। ফেলোশিপ গ্রহণকারীরা নিজেদের শিক্ষা ও অভিজ্ঞতা তাদের নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে কাজে লাগিয়ে সামগ্রিকভাবে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখতে পারবেন। বাংলাদেশের মোট ৬৯৭ জন এ বছর প্রশিক্ষণ পেয়েছেন। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের ইআরডির এডিশনাল সেক্রেটারি মো. জাহিদুল হক। 

বাংলাদেশে চীনের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ ‘লিংকাস’-এর সহযোগিতায় অনুষ্ঠান শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং মার্শাল আর্টের প্রদর্শন উপভোগ করেন অতিথিরা। উল্লেখ্য, ‘লিংকাস’ চীনের সরাসরি বিনিয়োগে বাংলাদেশ থেকে পরিচালিত একটি সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ, যেটি দেশের বহু প্রতিভাবান ছেলেমেয়ে নিজেদের তুলে ধরার একটি প্লাটফরম হিসেবে ব্যবহার করছেন। 

পিডিএসও/হেলাল