রাজস্ব আদায়ে প্রবৃদ্ধি সাড়ে ১৭ শতাংশ

প্রকাশ : ২০ জুন ২০১৮, ১১:৫৭

অনলাইন ডেস্ক

চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম ১১ মাস অর্থাৎ জুলাই থেকে মে পর্যন্ত রাজস্ব আদায় হয়েছে ১ লাখ ৭৯ হাজার ৪৬ কোটি টাকা। আলোচ্য সময়ে সংশোধিত লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২ লাখ ১২ হাজার ৯৫৮ কোটি টাকা। মে পর্যন্ত রাজস্ব আদায়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে সাড়ে ১৭ শতাংশ। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, অর্থবছরের শুরুতে এনবিআরের রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ২ লাখ ৪৮ হাজার ১৯০ কোটি টাকা নেওয়া হলেও বছরের শেষ দিকে এতে তা কমিয়ে সোয়া ২ লাখ কোটি টাকা করা হয়।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, অর্থবছর শেষে কমিয়ে আনা এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করাও কঠিন হবে। কেননা, এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে হলে চলতি জুনে এনবিআরকে প্রায় ৪৬ হাজার কোটি টাকার রাজস্ব আদায় করতে হবে। অর্থবছরের শেষ মাস হিসেবে রাজস্ব আদায় অন্য মাসের চেয়ে বেশি হলেও এত বিশাল পরিমাণ রাজস্ব আদায় করা কঠিন হবে বলে মনে করছেন এনবিআরের কর্মকর্তারাও।

সূত্র জানায়, গত অর্থবছরের জুনে এনবিআর রাজস্ব আদায় করেছিল ২৬ হাজার ৩০৯ কোটি টাকা। এর আগের বছরের জুনে ২১ হাজার ৮২১ কোটি টাকা আদায় করেছিল। আগামী অর্থবছরের জন্য ৩২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ধরে এরই মধ্যে বাজেটে ২ লাখ ৯৬ হাজার ২০ কোটি টাকার রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তবে অর্থনীতিবিদরা বলছেন, বিগত কয়েক বছর ধরেই রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবভিত্তিক হচ্ছে না। এর ফলে লক্ষ্যমাত্রার সঙ্গে আদায়ের বড় পার্থক্য থাকছে।

এনবিআর আয়কর, মূল্য সংযোজন কর (মূসক) বা ভ্যাট ও আমদানি পর্যায়ে আরোপিত শুল্ক খাত থেকে মোটা দাগে রাজস্ব আদায় করে থাকে। প্রতিষ্ঠানটির প্রাথমিক হিসাব অনুযায়ী, রাজস্ব আদায়ে অপেক্ষাকৃত পিছিয়ে রয়েছে আয়কর বিভাগ। গত ১১ মাসে ৬৮ হাজার ৯৮৯ কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আয়কর আদায় হয়েছে ৫১ হাজার ৪৫৪ কোটি টাকা। আলোচ্য সময়ে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ঘাটতি সাড়ে ১৭ হাজার কোটি টাকারও বেশি।

৮১ হাজার কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ভ্যাট আদায় হয়েছে ৭০ হাজার ৭৯২ কোটি টাকার। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ঘাটতি প্রায় ১০ হাজার ২১১ কোটি টাকা। তবে চলতি অর্থবছরের গত ১১ মাসে শুল্ক আদায় অপেক্ষাকৃত সন্তোষজনক। আলোচ্য সময়ে ৬২ হাজার ৯৬৭ কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে শুল্ক আদায় হয়েছে ৫৬ হাজার ৮০০ কোটি টাকার।

রাজস্ব আদায়ের সংশোধিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন নিয়ে এনবিআরের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী রাজস্ব আদায়ে এনবিআর প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বিভিন্ন প্রকল্পের উৎসে অগ্রিম আয়কর, বকেয়া আদায় বাড়ানোর মাধ্যমে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

পিডিএসও/তাজ