ব্রাজিলের প্রেরণা এখন ৭-১

প্রকাশ | ১৪ জুন ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

গত বিশ্বকাপে জার্মানির বিপক্ষে সেমিফাইনালে ৭-১ গোলের দুঃস্বপ্ন বয়ে গিয়েছিল ব্রাজিলের ওপর দিয়ে। সেই স্কোরলাইনটাই এবারের রাশিয়ার মঞ্চে নতুন প্রেরণা ব্রাজিলের। খেলোয়াড় ও কোচ হিসেবে বিশ্বকাপ জেতা মারিয়ো জাগালো এমনটাই জানালেন।

কয়েকদিন আগে ব্রাজিলের অনুশীলন ক্যাম্পে নেইমারদের দেখতে হাজির দর্শকদের একটা অংশ বারবার ‘৭-১’ বলে সেøাগান দিচ্ছিলেন। পরে তাদের সরিয়ে দেন নিরাপত্তাকর্মীরা। এরপরই ব্রাজিলজুড়ে নতুন জল্পনা, গত বিশ্বকাপে জার্মানির বিরুদ্ধে সেই ১-৭ হারের স্মৃতি কি রাশিয়ায় তাড়া করবে টিটের দলকে? বিশেষ করে ওই দলে থাকা ছয় ফুটবলারকে। যারা এবারও ব্রাজিলের বিশ্বকাপ দলে রয়েছেন।

সেই ছয় ফুটবলার হলেন নেইমার, থিয়াগো সিলভা, মার্সেলো, ফার্নান্দিনহো, উইলিয়ান ও পাউলিনহো।

তবে এই আশঙ্কাকে গুরুত্ব না দিয়ে বরং প্রেরণা হিসেবেই দেখছেন জাগালো। বলছেন, ‘সাত গোলের দুঃস্মৃতি প্রত্যেক ব্রাজিলীয় নাগরিকের কাছে আজও হুলের মতো বিঁধে আছে। তবে সমর্থকদের দোষারোপ না করে এটাকে প্রেরণা হিসেবেই দেখতে হবে। মনের মধ্যে ওই স্মৃতি জেগে উঠলে তবেই না তা মুছে ফেলার তাগিদ আসবে।’

ব্রাজিলিয়ান এই কিংবদন্তি নিজ দেশের এবারের দল নিয়ে অনেক আশাবাদী। তিনি বলেছেন, ‘টিটে ও নেইমারদের দলটা আগের বিশ্বকাপের চেয়ে অনেক ভালো, ভারসম্যের। গত বিশ্বকাপে আমাদের সেরা দলটা ছিল না। এবার আমাদের দলটা দুর্দান্ত। ফলে মানসিকতা পরিবর্তন হবেই।’

ব্রাজিলের ঘরোয়া ফুটবলে টিটের সুনাম রয়েছে ধুরন্ধর রণকৌশল ও শৃঙ্খলা ধরে রাখার জন্য। ব্রাজিলের কোচের পদে বসেই টিটের একমাত্র লক্ষ্য ছিল ৭-১ হারের ভয়টা কাটানো। বিশ্বকাপের মূলপর্বে যোগ্যতা অর্জনের পরই নতুন পরিকল্পনা নেন তিনি। টিটে ঘোষণা দিয়েছিলেন, ‘সবার আগে দরকার জার্মানির বিরুদ্ধে একটা প্রীতি ম্যাচ খেলা। আর সেটা হতে হবে জার্মানিতেই।’ গত মার্চে বার্লিনের সেই ম্যাচে নেইমারবিহীন ব্রাজিল ১-০ গোলে হারায় জার্মানিকে।

ওই জয়টাই এখন ব্রাজিল দলে আত্মবিশ্বাসটা বাড়িয়ে দিয়েছে কয়েক গুণ। সেলেকাও মিডফিল্ডার ফার্নান্দিনহো এখন স্বপ্ন দেখছেন বিশ্বকাপের, ‘চার বছর আগে সেই রাত ছিল জীবনের সবচেয়ে অভিশপ্ত। কিন্তু এখন আমরা সব হিসাব উল্টে দিতে পারি। সবকিছু ঠিক থাকলে এবার ব্রাজিল চ্যাম্পিয়ন হতেই পারে।’

সম্প্রতি প্রীতি ম্যাচে জার্মানিকে হারিয়েছিল অস্ট্র্রিয়া। গেল রোববার সেই অস্ট্রিয়ানদেরই উড়িয়ে দিয়েছে ব্রাজিল। নেইমার, কুতিনহো, জেসুসের দুর্দান্ত নৈপুণ্যে অস্ট্রিয়াকে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল সেলেকাওরা। দারুণ জয়ের পর দিন রাতে লন্ডনে এক রেস্তোরাঁয় নৈশভোজ সারতে গিয়েছিল গোটা ব্রাজিল দল। ‘বাব্বো’ নামের এই রেস্তোরাঁর আংশিক মালিকানা রয়েছে উইলিয়ান এবং ডেভিড লুইজের। শেষের জন্য সেই অভিশপ্ত ম্যাচে খেললেও এবার রাশিয়ায় দেখা যাবে না তাকে।

অবশ্য জাতীয় দল ফুরফুরে মেজাজে থাকলেও সেই সাত গোল ভোলেননি ব্রাজিলের জনগণ। তাদেরই একজন তোমাস আলভেস। রিও ডি জেনিইরোতে বাস করা আলভেস বিশ্বকাপ উপলক্ষে নতুন টিভি কিনেছেন। সেখানেই ব্রাজিলের সাংবাদিকের কাছে তিনি স্বীকারোক্তি দিয়েছেন, ‘আগের টিভিতে ৭-১ গোলের হার দেখেছিলাম। তাই এবার নতুন ব্রাজিলকে দেখব নতুন টিভিতে।’

একটু পরই মজা করে আলভেস বলেছেন, ‘ভাবছি পুরনো টিভিটা আর্জেন্টিনার কোনো বন্ধুকে দিয়ে দেব।’

"